বিজনেস২৪বিডি ডেস্ক »

গত সপ্তাহটি ছিল বিনিয়োগকারীদের জন্য সবচেয়ে ব্যয়বহুল, এমনকি তা বিলিয়নেয়ারদের জন্যও সত্য। করোনাভাইরাসের প্রভাব বিশ্বের সব প্রান্তে ছড়িয়ে পড়ায় শেয়ারবাজারে ৪৪ হাজার ৪০০ কোটি ডলার খুইয়েছেন বিশ্বের শীর্ষ ধনীরা। ডাউ জোনস শিল্প সূচক গত সপ্তাহে ১২ শতাংশের বেশি পতন হয়েছে, যা ২০০৮ সালের অর্থনৈতিক মন্দা-পরবর্তী সর্বোচ্চ। শেয়ারবাজারে গত সপ্তাহের বিশাল এ বিপর্যয়ে বৈশ্বিক শেয়ারের প্রায় ৬ ট্রিলিয়ন ডলার লাপাত্তা হয়ে গেছে।

ব্লুমবার্গ বিলিয়নেয়ার সূচকে দেখা গেছে, গত সপ্তাহে বিশ্বের শীর্ষ ৫০০ ধনী ব্যক্তির সম্পদ কমেছে ৭ হাজার ৮০০ কোটি ডলার। সবচেয়ে বেশি লোকসান গুনেছেন বিশ্বের শীর্ষ তিন ধনী ব্যক্তি; অ্যামাজন ডটকমের জেফ বেজোস, মাইক্রোসফটের সহপ্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস ও এলভিএমএইচের চেয়ারম্যান বেহনা আহনু। তাদের মোট সম্পদ কমেছে ৩ হাজার কোটি ডলার। লোকসানের দিক থেকে চতুর্থ স্থানে রয়েছেন বিশ্বের ২৫তম শীর্ষ ধনী ও টেসলার প্রতিষ্ঠাতা ইলোন মাস্ক। গত সপ্তাহে শেয়ারবাজারে ৯০০ কোটি ডলার খুইয়েছেন তিনি। ২০২০ সালে ইলোন মাস্কের নিট সম্পদের পরিমাণ ৩ হাজার ৬৩০ কোটি ডলার, যা গত বছরের চেয়ে এখনো ৮৮০ কোটি ডলার বেশি।

সম্পদ খোয়ানোর দিক থেকে শীর্ষ দশে থাকা ব্যক্তিরা হচ্ছেন; জেফ বেজোস (১ হাজার ১৯০ কোটি ডলার), গেটস (১ হাজার কোটি ডলার), বেহনা আহনু (৯১০ কোটি ডলার), ইলোন মাস্ক (৯০০ কোটি ডলার), ওয়ারেট বাফেট (৮৮০ কোটি ডলার), আমানসিও ওর্তেগা (৬৮০ কোটি ডলার), মার্ক জাকারবার্গ (৬৬০ কোটি ডলার), ল্যারি পেইজ (৬৪০ কোটি ডলার), কার্লোস স্লিম ((৬৩০ কোটি ডলার) ও সার্গেই স্লিম (৬২০ কোটি ডলার)।

ভাইরাস সংক্রমণে স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা হিমশিম খেলেও পরিস্থিতিকে মহামারী হিসেবে ঘোষণা দেয়া থেকে বিরত থাকছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »