বিজনেস২৪বিডি ডেস্ক »

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে আগামী ২১ ও ২২ মার্চ ঢাকায় বিশ্ব একাদশের বিপক্ষে এশিয়া একাদশের দুটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে, যেখানে লড়তে দেখা যাবে বিশ্বের বড় বড় ক্রিকেট তারকাদের।

এমন এক ম্যাচকে ঘিরে দর্শকদের আগ্রহ উদ্দীপনার কমতি নেই। বিশেষ করে এশিয়া একাদশে বাংলাদেশ ও ভারতের ক্রিকেটারদের একসঙ্গে খেলা নিয়েই সবচেয়ে বেশি রোমাঞ্চ টাইগার ক্রিকেটপ্রেমীদের।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন দিন কয়েক আগে মোটামুটি এশিয়া একাদশের লাইনআপও জানিয়ে দিয়েছেন। তিনি জানান, বাংলাদেশের চারজন ক্রিকেটার থাকবে, এটা নিশ্চিত। ভারত থেকেও চারজনের দলে থাকা নিশ্চিত।

বিসিবি সভাপতি বলেছিলেন, ‌‘ভারত থেকে চারটা নাম আমরা পেয়ে গিয়েছি, চুক্তি সাক্ষর হয়নি যদিও। চারজন হলো- রিশাভ পান্ত, কুলদ্বীপ যাদভ, শিখর ধাওয়ান এবং মোহাম্মদ শামি। আর লোকেশ রাহুলও বলছে এক ম্যাচ খেলবে। একটা ম্যাচ কোহলি, একটা ম্যাচ লোকেশ রাহুল- এ ধরনের কথাবার্তা হচ্ছে। এখন পর্যন্ত এটা ফাইনাল হয়নি, তবে কেউ না কেউ খেলবে (কোহলি ও রাহুলের মধ্যে)। একটা ম্যাচ রাহুল খেলবে এটা বলেছে আমাদের।’

এতটুকু শুনে নিশ্চিত হওয়া গেছে, ভারতের জাতীয় দলের বেশ কয়েকজন বড় তারকাকেই দেখা যাবে এশিয়া একাদশ আর বিশ্ব একাদশের মধ্যকার ম্যাচে। বিরাট কোহলিরও আসার সম্ভাবনা রয়েছে বেশ।

তবে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র যেমনটা জানাল, তাতে কপালে দুশ্চিন্তার ভাঁজ পড়তেই পারে ক্রিকেটপ্রেমীদের। বিসিসিআইয়ের সূত্র ব্যবহার করে সংবাদ সংস্থা পিটিআই জানিয়েছে, এখনও এশিয়া একাদশে ভারতের কারা খেলবেন তা ঠিক হয়নি। ক্রিকেটারদের পরিশ্রমের ব্যাপারটি নিয়ে দুশ্চিন্তায় আছে বিসিসিআই। সেগুলো চিন্তা করে তবেই বাংলাদেশে ক্রিকেটার পাঠানোর ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হবে।

ঢাকায় কোহলির ওই ম্যাচ খেলার বিষয়টিও অনেকটাই অনিশ্চিত। ভারতের কোচ রবি শাস্ত্রী বলেন, ‘এটা ক্রিকেটারদের সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করছে। তারা ধকল মনে করলে বোর্ডকে জানাবে।’

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »