বিজনেস২৪বিডি ডেস্ক »

প্রায় পাঁচ লাখ বছর আগেও পৃথিবীর বুকে তাদের পদচারণা ছিল। তবে নিয়ান্ডারথালদের আগেই তারা মানব প্রজাতির বিবর্তনের ধারা থেকে ছিটকে পড়ে। তা সত্ত্বেও আজও পৃথিবীতে তাদের জিন বহন করে চলেছে মানুষ। কিন্তু মানুষের এই নিকটাত্মীয়দের সম্পর্কে এখনো খুব বেশি জানতে পারেননি বিজ্ঞানীরা। তাই তাদের নাম দেওয়া হয়েছে ‘ভুতুড়ে জনগোষ্ঠী’।

যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটনভিত্তিক অলাভজনক আন্তর্জাতিক সংগঠন দ্য আমেরিকান অ্যাসোসিয়েশন ফর দ্য অ্যাডভান্সমেন্ট অব সায়েন্সের (এএএএস) বিজ্ঞানবিষয়ক সাময়িকী সায়েন্স অ্যাডভান্সেস গত বুধবার এ-সংক্রান্ত একটি গবেষণা নিবন্ধ প্রকাশ করেছে। গবেষণাটি করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়া, লস অ্যাঞ্জেলেসের (ইউসিএলএ) একদল বিজ্ঞানী।

গবেষণা নিবন্ধে বলা হয়, পশ্চিম আফ্রিকার অধিবাসীদের জিন পরীক্ষার সময় ওই ভুতুড়ে জনগোষ্ঠী সম্পর্কে ধারণা পান তাঁরা। গবেষণায় জানা গেছে, বিলুপ্ত এই প্রজাতির সঙ্গে আধুনিক মানুষের পূর্বপুরুষদের লাখো বছর আগে মিথস্ক্রিয়া হয়। সেটা ঘটে আফ্রিকায়। ওই অঞ্চলের মানুষ আজও ভুতুড়ে ওই জনগোষ্ঠীর জিনগত বৈশিষ্ট্য ২ থেকে ১৯ শতাংশ পর্যন্ত বহন করে চলেছে।

ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়া, লস অ্যাঞ্জেলেসের (ইউসিএলএ) মানবজিন ও কম্পিউটার বিজ্ঞানের অধ্যাপক শ্রীরাম শঙ্করারমন গবেষণা নিবন্ধ রচনায় নেতৃত্ব দিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘এই প্রজাতি সম্পর্কে আমরা এখনো খুব বেশি কিছু জানতে পারিনি। তারা কোথায় বাস করত, তাদের বিলুপ্তির কারণ কী, কিছুই জানা যায়নি।’

শ্রীরাম শঙ্করারমন বলেন, ধারণা করা হচ্ছে, ভুতুড়ে ওই জনগোষ্ঠী সাড়ে ছয় লাখ বছর আগে বিবর্তনের ধারা থেকে ছিটকে পড়ে। এই বিবর্তনের ধারায়ই আধুনিক মানুষের আবির্ভাব।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »