কলকাতার সিনেমা থেকে বাদ ফেরদৌস

ভারতের লোকসভা নির্বাচনের সময় তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী কানহাইয়া লাল আগরওয়ালের প্রচারণায় অংশ নিয়েছিলেন ফেরদৌস। তিনি পশ্চিমবঙ্গের উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জে প্রচারণায় গিয়েছিলেন অঙ্কুশসহ আরও কয়েকজন তারকার সঙ্গে। সেদিন তিনি রায়গঞ্জ আসনের করণ দিঘি থেকে ইসলামপুর পর্যন্ত তৃণমূলের প্রচার মিছিলেও অংশ নেন।

তখন তৃণমূল প্রার্থী বিদেশি তারকা এনে নির্বাচনী আচরণবিধি ভঙ্গ করার অভিযোগে তীব্র প্রতিবাদ করে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। নির্বাচন কমিশনের কাছেও অভিযোগ করলে তা প্রমাণিত হওয়ায় ফেরদৌসকে তখনই ভারত ছাড়ার আদেশ দেয় দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।
তার ভিসা বাতিল করা হয়। তখন ভারতের সংবাদমাধ্যম থেকে জানা যায়, দেশটিতে তাকে কালোতালিকাভুক্ত করা হয়েছে। সেই তালিকা থেকে এখনো নাম কাটা হয়নি তার। মিলেনি ভারতে প্রবেশের অনুমতিও।

তাই কলকাতার একটি ছবি থেকে বাদ পড়েছেন ‘হঠাৎ বৃষ্টি’ খ্যাত নায়ক ফেরদৌসৈ। সেই ছবির নাম ‘দত্তা’। ছবির নির্মাতা নির্মল চক্রবর্তী গণমাধ্যমে বলেন, ‘ফেরদৌসের জন্য আমরা প্রায় ছয় মাস অপেক্ষা করেছি। আমরা অনেক চেষ্টা করেছি। কিন্তু কিছুই হলো না। তার ভিসা নিয়ে সমস্যা হয়েছে। আর অনেক সময় লাগবে পুরো বিষয়টি মিটমাট হতে।

কিন্তু ততদিন অপেক্ষা করা অসম্ভব। তাই আমরা ফেরদৌসের সঙ্গে আলাপ করেছি। তার পরিবর্তে ছবিটির বিলাস বিহারি চরিত্রে সাহেব চট্টোপাধ্যায়কে নিয়েছি। তাকে নিয়ে আগামী ডিসেম্বরে ছবিটির শুটিং শুরু করব।’

তিনি আরও জানান, ফেরদৌসকে নিয়ে বাংলাদেশে গিয়ে ছবিটির শুটিং করার পরিকল্পনাও হয়েছিল। কিন্তু তাতে যে খরচ দাঁড়ায় ছবির বাজেটে পুষাবে না। বাধ্য হয়েই ফেরদৌসকে ছবিটিতে পাচ্ছেন না পরিচালক।

শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের বিখ্যাত উপন্যাস ‘দত্তা’ অবলম্বনে কলকাতায় তৈরি হচ্ছে চলচ্চিত্র। এই উপন্যাস অবলম্বনে এর আগে ১৯৫১ ও ১৯৭৬ সালে ভারতে দুটি ছবি তৈরি হয়েছে। এবার একই উপন্যাস নিয়ে নির্মল চক্রবর্তী নির্মাণ করছেন তার প্রথম চলচ্চিত্র।

ছবিটিতে অভিনয়ের জন্য আগেই চুক্তিবদ্ধ হন বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় চিত্রনায়ক ফেরদৌস। এপ্রিল মাসে বোলপুরে ছবিটির শুটিংও করেছেন তিনি। এরইমধ্যে ছবির ১০ ভাগ শুটিং হয়েছে। ছবিতে বিজয়ার চরিত্রে অভিনয় করছেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »