‘গ্রিন ফ্যাক্টরি অ্যাওয়ার্ড-২০২০’ পেলো স্নোটেক্স

স্টাফ রিপোর্টার

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ‘মুজিববর্ষ’-কে অধিকতর গৌরবোজ্জ্বল ও স্মরণীয় করে রাখার লক্ষ্যে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় প্রথমবারের মতো ৬টি সেক্টরের ৩০ প্রতিষ্ঠান/কারখানাকে ‘গ্রিন ফ্যাক্টরি অ্যাওয়ার্ড’ দিচ্ছে। তৈরি পোশাক খাতে এ বছর ‘গ্রিন ফ্যাক্টরি অ্যাওয়ার্ড’ পেয়েছে স্নোটেক্স আউটারওয়্যার লিমিটেড।

কয়েকটি মাপকাঠি সামনে রেখে গ্রিন ফ্যাক্টরি অ্যাওয়ার্ড দেওয়া হচ্ছে। এগুলো হলো- অপরিহার্য প্রতিপালন, পরিবেশগত প্রতিপালন, প্রাতিষ্ঠানিক প্রতিপালন ও উদ্ভাবনী কার্যক্রম।

বুধবার (৮ ডিসেম্বর) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভার্চুয়ালি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এ অ্যাওয়ার্ড দেন। অনুষ্ঠানে শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান সভাপতি হিসেবে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে রফতানিমুখী পোশাক শিল্পপ্রতিষ্ঠান স্নোটেক্স গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এস এম খালেদের হাতে পুরস্কারটি তুলে দেন।

নিরাপদ ও শোভন কর্মপরিবেশে পরিবেশবান্ধব প্রযুক্তি ও দক্ষ শ্রমশক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে আরও অধিক পরিমাণে উৎপাদন নিশ্চিত করে, দেশের অর্থনীতির গতি বেগবান ও টেকসই করার মাধ্যমে জাতির জনকের স্বপ্নের সোনার বাংলা বির্নিমাণ এবং দেশীয় শিল্পপ্রতিষ্ঠানগুলোকে প্রতিযোগিতামূলক অংশগ্রহণে উদ্বুদ্ধকরণে ‘গ্রিন ফ্যাক্টরি অ্যাওয়ার্ড-২০২০’ প্রবর্তন করা হয়েছে। এখন থেকে প্রতি বছর এ অ্যাওয়ার্ড দেওয়া হবে।

‘স্নোটেক্স’ ২০০০ সালে বায়িং হাউজের মাধ্যমে যাত্রা শুরু করে। ২০০৫ সালে নিজেদের প্রথম কারখানা হিসেবে প্রতিষ্ঠা করে স্নোটেক্স অ্যাপারেলস। সেই সাফল্যের ধারাবাহিকতায় ২০১১ সালে ‘কাট অ্যান্ড সিউ’ এবং ২০১৪ সালে স্নোটেক্স আউটারওয়্যার লিমিটেড প্রতিষ্ঠা করা হয়। সর্বশেষ ২০১৯ সালে স্নোটেক্স স্পোর্টসওয়্যার লিমিটেড প্রতিষ্ঠা করা হয়। আজকের স্নোটেক্স হয়ে উঠেছে চারটি বড় কারখানার একটি প্রতিষ্ঠানরূপে। স্নোটেক্স আউটারওয়্যার গ্রিন ফ্যাক্টরি হিসেবে পুরস্কৃত হয়েছে ইউএসজিবিসির লিড গোল্ড সার্টিফিকেটে। এছাড়া শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের অধীনে ‘হেলথ অ্যান্ড সেফটি’ অ্যাওয়ার্ড পেয়েছে স্নোটেক্স। প্রতিষ্ঠানটি এখন ১৮ হাজারেরও বেশি মানুষের কর্মসংস্থান করে যাচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.