কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি চিনিকল বন্ধের : সংসদে শিল্পমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্ট

একমাত্র কেরু অ্যান্ড কোম্পানি বাদে দেশের সবগুলো চিনিকল অলাভজনক বলে জানিয়েছে শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন।  এর পরিপ্রেক্ষিতে কলগুলোতে আখ মাড়াই স্থগিত রাখা হয়েছে। কোনো চিনিকল বন্ধের বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়নি বলেও জানান মন্ত্রী।

মঙ্গলবার সংসদে সরকারি দলের সংসদ সদস্য আলী আজমের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ তথ্য জানান। এর আগে স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের বৈঠক শুরু হলে প্রশ্নোত্তর পর্ব টেবিলে উত্থাপিত হয়।

জাতীয় সংসদে মন্ত্রী জানান, বাংলাদেশে চিনি ও খাদ্য শিল্প করপোরেশনের আওতাধীন ১৫টি চিনিকল রয়েছে।  এর মধ্যে কেরু অ্যান্ড কোম্পানি (বিডি) লিমিটেড লাভজনক, বাকি ১৪টি মিলই অলাভজনক।

মন্ত্রী বলেন, চলতি ২০২০-২০২১ মাড়াই মৌসুমের জন্য ৬টি চিনিকলের মাড়াই কার্যক্রম স্থগিত রাখা হয়েছে।  কোনো চিনিকল বন্ধ করা হয়নি। চিনিকল বন্ধ করার বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

আলী আজমের আরেক প্রশ্নের জবাবে শিল্পমন্ত্রী বলেন, দেশের চিনি শিল্পকে রক্ষার লক্ষ্যে ১৪টি চিনিকলে বর্জ্য পরিশোধনাগার স্থাপনের প্রকল্প চলমান রয়েছে।

তিনি জানান, নাটোর জেলার লালপুর উপজেলা, ঠাকুরগাঁও জেলার সদর উপজেলা, ঝিনাইদহ জেলার কালীগঞ্জ উপজেলা এবং চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুরহুদা উপজেলায় বৈদেশিক বিনিয়োগের মাধ্যমে শিল্প কারখানা স্থাপনের সম্ভাব্যতা যাচাই কার্যক্রম চলমান।

গাইবান্ধা-১ আসনের সংসদ সদস্য শামীম হায়দার পাটোয়ারীর এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ১৫টি চিনিকলের মধ্যে ৬টি চিনিকলের মাড়াই কার্যক্রম স্থগিত রাখা হয়েছে। বাকি ৯টি চিনিকলের মাড়াই কার্যক্রম চলমান। কোনো চিনিকল বন্ধ করা হয়নি।

বগুড়া-৫ আসনের সংসদ সদস্য মো. হাবিবর রহমানের এক প্রশ্নের জবাবে শিল্পমন্ত্রী জানান, সারাদেশে উন্নত অবকাঠামো উন্নয়নের লক্ষ্যে ৭৬টি বিসিক শিল্পনগরী স্থাপিত হয়েছে। সরকারের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির আওতায় চলতি ২০২০-২১ অর্থবছরে ১২টি শিল্পনগরী প্রকল্প স্থাপনের কাজ বাস্তবায়নাধীন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *