চীনে স্বর্ণের খনিতে বিস্ফোরণ ২২ শ্রমিক আটকা

স্টাফ রিপোর্ট

চীনে একটি স্বর্ণের খনিতে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। এতে ২২ জনের মৃত্যুর শঙ্কা দেখা দিয়েছে। স্থানীয় কর্তৃপক্ষ সেখানে উদ্ধারকারী দল পাঠিয়েছে। খনিতে বিস্ফোরণের সময় ২২ জন শ্রমিক সেখানে আটকা পড়েন। তাদের ভাগ্যে কী ঘটেছে তা এখনও নিশ্চিত নয়।

মঙ্গলবার শিনহুয়া নিউজ এজেন্সির এক প্রতিবেদনে খনিতে বিস্ফোরণের খবর জানানো হয়। পূর্বাঞ্চলীয় শানডং প্রদেশের শিচেং এলাকায় ওই দুর্ঘটনা ঘটেছে। শানডং কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম গ্লোবাল টাইমস জানিয়েছে, উদ্ধারকারী দল এখনও আটকে পড়া শ্রমিকদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেনি। ফলে ওই শ্রমিকদের বর্তমান অবস্থা নিয়ে সবাই চিন্তিত।

শিনহুয়ার প্রতিবেদন অনুযায়ী, বিস্ফোরণের কারণে খনির ভেতরে যোগাযোগের যে সিগন্যাল রয়েছে তা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ফলে ভেতরের লোকজনের সঙ্গে যোগাযোগ করা যাচ্ছে না।

ঝাওজিন নামের ওই খনিটি শানডং উকাইলং ইনভেস্টমেন্টের। এটি চীনের চতুর্থ বৃহত্তম স্বর্ণের খনি। চীনের বিভিন্ন খনিতে প্রায়ই এ ধরনের দুর্ঘটনা ঘটে থাকে। নিরাপত্তা ব্যবস্থার ত্রুটি ও সরকারি বিভিন্ন নিষেধাজ্ঞা অমান্য করেই এসব খনির কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। ফলে প্রতি বছরই বহু শ্রমিক বিভিন্ন দুর্ঘটনায় প্রাণ হারাচ্ছে।

এর আগে গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় চোংকিং শহরে একটি খনিতে আটকা পড়ে কমপক্ষে ১৮ জনের মৃত্যু হয়। ডায়াসুইডং কয়লা খনিটিতে মোট ২৪ জন আটকা পড়েছিল। কয়েকজনকে সেখান থেকে উদ্ধার করা সম্ভব হলেও বেশিরভাগ শ্রমিক কার্বন মনোঅক্সাইড গ্যাসের কারণে প্রাণ হারান।

গত বছরের সেপ্টেম্বরেও আরও একটি দুর্ঘটনা ঘটে। সে সময় সংজাও কয়লা খনিতে কার্বন মনোঅক্সাইডের মাত্রা বেড়ে যাওয়ায় কমপক্ষে ১৬ জনের মৃত্যু হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *