বিজনেস সূচকে বাংলাদেশ দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে:বাণিজ্যমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্ট

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, এমপি বলেছেন, ডিজিটাল সেবা নিশ্চিত করে ইজ অফ ডুয়িং বিজনেস সূচকে বাংলাদেশ দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। ব্যবসা-বাণিজ্য সহজ করা হয়েছে। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ডিজিটাল পদ্ধতিতে সেবা প্রদান করছে। বেশিরভাগ কার্যক্রম ইতোমধ্যে ডিজিটাল সেবার আওতায় এসেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্ন বাস্তবায়নে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় আন্তরিকতার সাথে কাজ করে যাচ্ছে। বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ব্যবসা-বাণিজ্য পরিচালনার ফি/চার্জ এখন থেকে সোনালী ব্যাংকের মাধ্যমে অনলাইনে জমা প্রদান করা যাবে।

এ উদ্দেশ্যে  বৃহস্পতিবার (০৭ জানুয়ারি, ২০২১) বাণিজ্য মন্ত্রণারয়ের অধীন আমদানি ও রপ্তানি অধিদফতরের সাথে সোনালী ব্যাংক লি. এর একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করা হলো, এখন থেকে ই-পেমেন্টের মাধ্যমে ব্যাংকিং কার্যক্রম পরিচালনার সুযোগ সৃষ্টি হলো। গত বছরের জুলাই মাস থেকে অনলাইন লাইসেন্সিং সিডিউলের মাধ্যমে ব্যবসায়ীদের আমদানি-রপ্তানি, ইনডেন্টিং এবং শিল্প নিবন্ধন সনদপত্র প্রদান সেবা অনলাইনে প্রদান করা হচ্ছে। প্রতিযোগিতামূলক  বিশ্ববাণিজ্যে ডিজিটাল সেবা প্রদান খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়, বাংলাদেশ সফল ভাবেই সে কাজটি করছে।

বাণিজ্যমন্ত্রী বাংলাদেশ সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে আমদানি ও রপ্তানি অধিদফতরের সাথে সোনালী ব্যাংক লি. এর সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর এবং ই-পেমেন্ট কার্যক্রম “সোনালী পেমেন্ট গেটওয়ে” এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য প্রদানের সময় এসব কথা বলেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ই-পেমেন্ট সেবা চালুর ফলে ব্যবসা বাণিজ্যের ফি/চার্জ প্রদানের ক্ষেত্রে কোন জটিলতা থাকবে না। দেশে এবং আন্তর্জাতিক বাণিজ্যের সকল ক্ষেত্রে ডিজিটাল সুবিধা নিশ্চিত করতে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় কাজ করে যাচ্ছে। ডিজিটাল বাংলাদেশ এখন স্বপ্ন নয়, বাস্তব। দেশের গ্রামের মানুষও ডিজিটাল সুবিধা ভোগ করছে।

উল্লেখ্য, সমঝোতা স্মারকে আমদানি ও রপ্তানি অধিদফতরের পক্ষে প্রধান নিয়ন্ত্রক সোলেমান খান এবং সোনালী ব্যাংক লি. এর পক্ষে চিফ ফিনানশিয়াল অফিসার সুভাস চন্দ দাস স্বাক্ষর করেন। সোনালী পেমেন্ট গেটওয়ে এর মাধ্যমে ক্যাশ অন কাউন্টার, অনলাইন এ্যাকাউন্ট ট্রান্সফার, মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিস, ডেভিড-কেডিট কার্ডসহ অন্যান্য পেমেন্ট সিসটেম ব্যবহার করে অন-লাইনে পেমেন্ট করা যাবে। এতে করে ব্যবসায়ীদের সময়, শ্রম এবং ব্যবসা পরিচালনা ব্যয় হ্রাস পাবে।

আমদানি ও রপ্তানি অধিদফতরের প্রধান নিয়ন্ত্রক সোলেমান খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাণিজ্য সচিব ড. মো. জাফর উদ্দীন। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন- সোনালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও মো. আতাউর রহমান প্রধান বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অধীন সকল বিভাগীয় প্রধান এবং বাণিজ্য মন্ত্রণারয়ের সিনিয়র অফিসারগণ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *