‘কমান্ডো’র বিরুদ্ধে ইসলাম বিদ্বেষের অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্ট

বাংলাদেশ-ভারতের যৌথ প্রযোজনার সিনেমায় অভিনয় করলেও বাংলাদেশের সিনেমায় এই প্রথম দেবকে দেখা যাবে। এ নিয়ে দর্শকের বাড়তি কৌতূহল তৈরি হলেও ওপার বাংলার এই নায়ক এপার বাংলার প্রথম সিনেমাতেই বিতর্কের মুখে পড়েছেন।

গত ২৫ ডিসেম্বর দেবের জন্মদিনে ‘কমান্ডো’ সিনেমার টিজার প্রকাশ করা হয়। এরপরই সিনেমাটি ‘ইসলামবিরোধী’ দাবি করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সরব হয় একটি মহল। অনেকেই সিনেমাটিকে ইসলামকে ছোট করা ও ইসলামের বিরুদ্ধে অপপ্রচারের মাধ্যম হিসেবে দেখছেন।

দেব এন্টারটেইনমেন্ট ভেঞ্চারের ইউটিউব চ্যানেলে টিজার প্রকাশের পর টিজারের কমেন্ট বক্সে মেহেদী হাসান বাবু লিখেছেন: ‘বাংলাদেশ জংগী রাষ্ট্র? ধিক্কার জানাই এসব জংগীবাদের সিনেমাকে।’ রোকন সর্দার লিখেছেন: ‘শুধু মুসলিমরাই দেশদ্রোহী করে, এমন ধারণা কীভাবে হলো। পারলে ভালো গল্প নিয়ে ছবি নির্মাণ করেন কোনো ধর্মকে ছোট না করে।’

এদিকে ‘কমান্ডো’ সিনেমায় ইসলামকে অবমাননা করা হয়েছে দাবি করে মাওলানা আব্দুল্লাহ হাই সাইফুল্লাহ ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেন। তিনি টিজার থেকে সিনেমার স্ক্রিনশট নিয়ে ‘কালেমা’র ব্যবহারকে জঙ্গিবাদের সিম্বল হিসেবে দেখানো হয়েছে বলে মন্তব্য করেন। বিশ্বব্যাপী ইসলাম নিয়ে যে ষড়যন্ত্র চলছে, এ সিনেমা তারই অংশ বলেও মনে করেন তিনি।

দেলোয়ার হোসেন দিলের চিত্রনাট্যে সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন শামীম আহমেদ রনি। প্রযোজনা করেছেন শাপলা মিডিয়া ইন্টারন্যাশনালের কর্ণধার মো. সেলিম খান।তিনি সিনেমাটিকে ইসলামবিরোধী নয় দাবি করে বলেন, ‘টিজারের একটি দৃশ্য দেখে সিনেমার পুরো গল্প কী হবে বলা যায় না। আমি নিজেও মুসলমান। ইসলামকে অবমাননা করার মতো স্পর্ধা আমার নেই।’ সেলিম খান  এই সিনেমাতে ইসলামের নানা গুণাবলী তুলে ধরা হয়েছে দাবি করেন। তিনি সবাইকে ধৈর্য ধরে পুরো সিনেমা দেখার আহ্বান জানিয়েছেন।

এই সিনেমায় দেবের বিপরীতে অভিনয় করেছেন জাহারা মিতু।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *