স্টাফ রিপোর্টার »

ফ্যাট ও প্রোটিন থাকার পরেও শরীরের জন্য উপকারী পিনাট বাটার। প্রোটিন এবং ফাইবার থাকায় পিনাট বাটার খেলে আপনার পূর্ণাঙ্গ খাদ্য গ্রহণ সম্ভব হবে। ফলে ফাস্ট ফুড এবং অস্বাস্থ্যকর খাবারের প্রয়োজনীয়তা অনেক কমে আসবে। একজন মানুষের দিনে দুই টেবিল চামচ পিনাট বাটার খাওয়া উচিত। এই দুই টেবিল চামচ পিনাট বাটারে আছে ৭ গ্রাম প্রোটিন। চলুন জেনে নেয়া যাক পিনাট বাটার তৈরির রেসিপি-

উপকরণ:
বাদাম-২ কাপ
তেল-২ চা চামচ
মধু- ২ চা চামচ
কোকো পাউডার- ২ চা চামচ
গরম মশলা গুঁড়া- ১/২ চা চামচ
চকোলেট চিপস- ২ চা চামচ
লবণ-স্বাদমতো।

প্রণালি:
প্রথমে একটি পাত্রে বাদামগুলো দিন। মাঝারি আঁচে পাঁচ মিনিট পর্যন্ত ভেজে নিন। এবার ভাজা বাদামগুলো একটি ব্লেন্ডারে দিয়ে পাঁচ মিনিট ভালো করে ব্লেন্ড করে নিন। ব্লেন্ড করা ওই বাদামের সঙ্গে তেল, কোকো পাউডার, গরম মশলার গুঁড়া, মধু, চকলেট চিপস এবং লবণ দিয়ে আরও পাঁচ মিনিট ব্লেন্ড করুন। হাত দিয়ে দেখে নিন সবগুলো উপকরণ ঠিকমতো ব্লেন্ড হয়েছে কি-না। এরপর একটি বোতলে বাদামের এই মিশ্রণটি রেখে ফ্রিজে ঠান্ডা করে নিলেই তৈরি হয়ে যাবে স্বাস্থ্যকর পিনাট বাটার।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »