স্টাফ রিপোর্টার »

সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারিরা আইনি বিধি-বিধান উপেক্ষা করে রাষ্ট্রায়ত্ব একটি ব্যাংকের তহবিল থেকে নিজেদের আয়কর পরিশোধ করায় রাষ্ট্রের আর্থিক ক্ষতি হয়েছে, দুই কোটি ৩২ লাখ টাকা। এ নিয়ে চরম অসন্তোষ প্রকাশ করেছে সরকারি হিসাব সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। কমিটির বৈঠকে এ সংক্রান্ত অডিট আপত্তি দ্রুত নিষ্পত্তির তাগিদ দেওয়া হয়েছে।

আজ বুধবার জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত ওই বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন কমিটির সভাপতি মো. রুস্তম আলী ফরাজী। বৈঠকে কমিটির সদস্য মো. আব্দুস শহীদ, র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী, মনজুর হোসেন ও মো. জাহিদুর রহমান এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সংসদীয় কমিটি সূত্র জানায়, আমলারা ব্যক্তিগত আয়কর পরিশোধে সরকারের নির্দেশ মানেননি। রাষ্ট্রায়ত্ব রুপালি ব্যাংকের তহবিল তছরুপ করে তারা নিজেদের আয়কর পরিশোধ করেছেন, যা অডিটে ধরা পড়েছে। এতে রাষ্ট্রের ক্ষতি হয়েছে দুই কোটি ৩২ লাখ ৬৮ হাজার টাকা। বিষয়টি নিয়ে আলোচনা শেষে কমিটির পক্ষ থেকে যেসব কর্মকর্তা-কর্মচারীরা ইতিমধ্যে প্রয়াত হয়েছেন তাদের ঋণ মওকুফ করে জীবিতদের কাছ থেকে ব্যয়িত টাকা উদ্ধার করে রাষ্ট্রীয় তহবিল পূরণের সুপারিশ করা হয়েছে। এছাড়া সীমাতিরিক্ত চলতি মূলধন সিসি হাইপো ঋণ বিতরণ, ডাউন পেমেন্ট ব্যতিরেকে পুনঃতফসিলিকরণ এবং মঞ্জুরীপত্রের শর্তানুযায়ী মেয়াদী ঋণ ও ফোসর্ড লোন আদায়ে ব্যর্থ হওয়ায় ব্যাংকের যে ক্ষতি হয়, তা আদায়ে তদরকি অব্যাহত রাখতে বলা হয়।

কমিটি সূত্র আরো জানায়, রূপালী ব্যাংকের ক্রয়কৃত রপ্তানী বিল ও জামানতবিহীন ব্যাংক ওডি ঋণ মেয়াদোর্ত্তীর্ণ হওয়ার পর দীর্ঘদিনেও আদায় হয়নি। এতে ব্যাংকের আর্থিক ক্ষতি হয়েছে ২৬ কোটি ৫৮ লাখ ৬১ হাজার ৪৫৯ টাকা। ব্যাংকের ঋণ কার্যক্রমে সঠিক ঋণ গ্রহীতা নির্বাচন না করে ঋণ বিতরণ করায় অনাদায়ী অর্থ কু-ঋণে পরিণত হওয়ায় ব্যাংকের আরো ক্ষতি হয়েছে ১৯৮ কোটি ৪৯ লাখ। এ সংক্রান্ত অডিট আপত্তি দ্রুত নিষ্পত্তির সুপারিশ করেছে কমিটি।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »