স্টাফ রিপোর্টার »

বরগুনার আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় অপ্রাপ্তবয়স্ক আসামিদের রায় আজ। এ জন‌্য মামলায় কারাগারে থাকা ছয় আসামিকে আদালতে হাজির করেছে পুলিশ। জামিনে থাকা আট আসামিও স্বজনদের সঙ্গে আদালতে এসেছে।

মঙ্গলবার (২৭ অক্টোবর) বরগুনার শিশু আদালতের বিচারক হাফিজুর রহমান রায় ঘোষণা করবেন।

অপ্রাপ্তবয়স্ক আসামিরা হলেন, রাশিদুল হাসান রিশান (১৭+), রাকিবুল হাসান রিফাত হাওলাদার (১৫+), আবু আবদুল্লাহ রায়হান (১৬+), অলি উল্লাহ ওলি (১৬+), জয় চন্দ্র সরকার চন্দন (১৭+), নাইম (১৭+), তানভীর হোসেন (১৭+), নাজমুল হাসান (১৪+), রাকিবুল হাসান নিয়ামত (১৫+), মো. সাইয়েদ মারুফ বিল্লাহ (মহিবুল্লাহ), মারুফ মল্লিক (১৭+), প্রিন্স মোল্লা (১৫+), রাতুল সিকদার (১৪+) ও আরিয়ান শ্রাবণ (১৬+)।

আজ সকাল থেকে আদালত প্রাঙ্গণে নিরাপত্তা ব‌্যবস্থা জোরদার করা হয়। মামলার রায় শুনতে আদালতে রিফাতের পরিবারের সদস্যরা ছাড়াও মামলার আইনজীবী, গণমাধ্যমকর্মী ও আসামিদের স্বজনরা হাজির হয়েছেন।

কারাগার থেকে আদালতে আসামিদের আনার সময় প্রিজনভ্যানটিকে মাঝখানে রেখে দুইপাশে ছিল র‌্যাব ও পুলিশের গাড়ি। এরপর সারিবদ্ধভাবে ছয় আসামিকে প্রিজনভ্যান থেকে নামিয়ে আদালতে নিয়ে যাওয়া হয়।

গত ১৪ অক্টোবর এ মামলার দুই পক্ষের যুক্তিতর্কের শুনানি শেষে আদালত রায়ের জন্য আজকের দিন ধার্য করেন।

গত ৩০ সেপ্টেম্বর বরগুনার জেলা ও দায়রা জজ মো. আছাদুজ্জামান প্রাপ্তবয়স্ক মিন্নিসহ ছয় আসামিকে মৃত্যুদণ্ড ও চারজনকে খালাস দেন।
গত বছরের ১ সেপ্টেম্বর নিহত রিফাত শরীফের স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নিসহ ২৪ জনের বিরুদ্ধে দুটি অভিযোগপত্র আদালতে দাখিল করেন তদন্ত কর্মকর্তা মো. হুমায়ূন কবির। এর মধ্যে প্রাপ্তবয়স্ক ১০ জন ও অপ্রাপ্তবয়স্ক ১৪ জনকে পৃথকভাবে আসামি করা হয়।

উল্লেখ‌্য, ২০১৯ সালের ২৬ জুন বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে প্রকাশ্যে কুপিয়ে জখম করা হয় রিফাত শরীফকে। ওই দিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। এরপর রিফাতের বাবা দুলাল শরীফ বাদী হয়ে বরগুনা থানায় একটি হত্যা মামলা করেন।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »