বিজনেস২৪বিডি ডেস্ক »

অর্থ ও মানবপাচারের অভিযোগে কুয়েতে আটক লক্ষীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) কাজী শহীদ ইসলাম পাপুলের আটকাদেশ আরও দুই সপ্তাহ বাড়িয়েছে দেশটির উচ্চ আদালত।

রোববার কুয়েতের আল রাই পত্রিকা তাদের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

এদিকে এমপি পাপুলকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে আটক কুয়েতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আন্ডার সেক্রেটারি মেজর জেনারেল শেখ মাজেন আল জাররা আল সাবাহকে তিন সপ্তাহের আটকাদেশ দেন দেশটির উচ্চ আদালত। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে কুয়েতের আরও দুই নাগরিককে আরও দুই সপ্তাহের আটকাদেশ দেন আদালত।

গত ৬ জুন কুয়েতে সিআইডির হাতে আটক হন বাংলাদেশি এমপি পাপুল। পরে তাকে রিমান্ডে নেয় সিআইডি। রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদের একপর্যায়ে পাপুলের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে কুয়েত প্রশাসন।

এমপি পাপুল ছাড়াও কুয়েতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আন্ডার সেক্রেটারি মেজর জেনারেল শেখ মাজেন আল জাররা আল সাবাহসহ দেশটির আরও দুই নাগরিককেও আটক করে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

এদিকে এমপি পাপুলকাণ্ডে কুয়েতের মানবসম্পদ বিভাগে এক উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাসহ দেশটির কয়েকজন কর্মকর্তাকে বরখাস্তও করা হয়েছে।

বিদেশি বিনিয়োগ পিছিয়ে দেশ

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »