৯ কোটি ছাড়াবে বিতর্কিত সিনেমা এক্সট্র্যাকশনের দর্শক

নেটফ্লিক্সে ২৪ এপ্রিল মুক্তি পেয়েছে হলিউডের ‘এক্সট্র্যাকশন’ সিনেমা। ‘অ্যাভেঞ্জার্স : ইনফিনিটি ওয়ার’ ছবির পরিচালকদ্বয় জো রুশো ও অ্যান্থনি রুশোর প্রযোজনায় এ ছবিতে মূল চরিত্রে অভিনয় করেছেন থর’খ্যাত অভিনেতা ক্রিস হেমসওর্থ।

বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার গল্পে নির্মিত ‘এক্সট্র্যাকশন’ মুক্তি পর থেকেই বাংলাদেশে বেশ সমালোচিত হয়েছে। কারণ বাংলাদেশের দর্শকদের অভিযোগ, সিনেমায় বাংলাদেশকে হেয় করে উপস্থাপন করা হয়েছে। এমন সমালোচনার মাঝেও অল্প সময়ে নেটফ্লিক্সে সর্বোচ্চ দর্শক পাওয়ার কন্টেন্ট হিসেবে সব রেকর্ড ভেঙে দিতে চলেছে এক্সট্র্যাকশন।

এক টুইট বার্তায় নেটফ্লিক্স জানিয়েছে, মুক্তির প্রথম সপ্তাহে রেকর্ড ৯০ মিলিয়ন দর্শকের পরিবারে প্রবেশ করবে ‘এক্সট্র্যাকশন’। যার মানে এর দর্শক ৯ কোটি ছাড়াবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

শুধু তাই নয়, ‘এক্সট্র্যাকশন’ নেটফ্লিক্সের ইতিহাসে সবচেয়ে সর্বকালের বৃহত্তম সিনেমার প্রিমিয়ার হয়ে উঠার পথে আছে বলেও জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার প্রেক্ষাপটে এ সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন স্যাম হারগ্রেভ। এর মধ্য দিয়ে এই প্রথম ঢাকা শহরের গল্প নিয়ে কোনো সিনেমা নির্মাণ করা হয়েছে হলিউডে। আগেই জানা গিয়েছিলো এই খবর। তবে কী সেই গল্প, কীভাবে দেখানো হবে ঢাকাকে। তা জানা যাওয়ায় ছবিটি নিয়ে এদেশের দর্শকের আগ্রহ ছিলো তুঙ্গে।

তাই ছবিটি নেটফ্লিক্সে মুক্তি পেতেই হুমড়ি খেয়ে পড়েন সবাই। অনেক আশা আর প্রত্যাশা নিয়ে ছবিটি দেখতে শুরু করেছিলেন দর্শক। কিন্তু অভিজ্ঞতা হলো খুবই বাজে। বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকাকে একটি অপরাধপ্রবণ শহর হিসেবে এখানে দেখানো হয়েছে যা দেশটির জন্য অপমানের।

শুধু তাই নয়, ঢাকাবাসীদের ভুলভাবে তুলে ধরা হয়েছে ছবিতে মিথ্যে তথ্য দিয়ে। দেশের পুলিশ, সেনাবাহিনীসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে দেখানো হয়েছে দুর্নীতিবাজ হিসেবে। যার ফলে ‘এক্সট্রেকশন’ ছবির বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করছেন বাংলাদেশিরা।

শত শত রিভিউ দেখা যাচ্ছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। যার অধিকাংশই এ ছবির সমালোচনায় ভরা। অনেকেই ছবির কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে বাংলাদেশকে সন্ত্রাসের দেশ হিসেবে প্রতিষ্টা করে ভাবমূর্তি নষ্ট করায় আন্তর্জাতিক আদালতে মামলা করার জন্য সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণও করেছেন। সেইসঙ্গে অনেকে ছবিটির দুর্বল গল্প, মানহীন নির্মাণের জন্যও সমালোচনা করেছেন।

সাধারণ দর্শকদের পাশাপাশি অনেক তারকারাও ছবিটির গল্প, নির্মাণ নিয়ে হতাশা প্রকাশ করেছেন। তারা ছবিতে বাংলাদেশ ও ঢাকাকে হেয় করায় ক্ষোভও প্রকাশ করেছেন।

সিনেমাটিতে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন ক্রিস হেমসওয়ার্থ। এছাড়া আরও অভিনয় করেছেন ডেভিড হারবার, ডেরেক লুকে, পঙ্কজ ত্রিপাঠি ও রনদীপ হুদাসহ অনেকেই।

জানা গেছে, ভারতের আহমেদাবাদ এবং থাইল্যান্ডের ব্যাংকক শহরে সিনেমাটির দৃশ্যধারণ করা হয়েছে। শুটিং এর জন্য ঢাকার আদলে বানানো হয় ছোট্ট একটি শহরও। ‘এক্সট্র্যাকশন’ সিনেমাটির বেশ কিছু দৃশ্য বাংলাদেশেও ধারণ করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

YouTube
Pinterest
LinkedIn
Share
Instagram
WhatsApp
FbMessenger
Tiktok