সিরিয়ায় ইসরায়েলের হামলা

সিরিয়ায় ইরানি স্থাপনাকে লক্ষ্যবস্তু বানিয়ে হামলা করেছে ইসরায়েলের সেনাবাহিনী। ইসরায়েল ডিফেন্স ফোর্সেস (আইডিএফ) জানিয়েছে, তারা কুদস বাহিনী-যারা ইরানিয়ান রেভুলশনারি গার্ডের এলিট ফোর্স তাদের বিরুদ্ধে অভিযান চালাচ্ছে।

এ বিষয়ে বিস্তারিত না জানা গেলেও সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কে সোমবার সকালে হামলার খবর পাওয়া গেছে। তবে এই আক্রমণের ফলে কী পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তা এখনো জানা যায়নি। সোমবার ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর ভাষ্য অনুযায়ী, গোলান মালভূমির উত্তরাঞ্চলে রকেট হামলা করা হলে তা প্রতিহত করে আয়রন ডোম এরিয়াল ডিফেন্স সিস্টেম। আর এর পরেই সিরিয়ায় অভিযান শুরু করে তারা। হামলার জের ধরে গোলান মালভূমির জনপ্রিয় শীতকালীন পর্যটনকেন্দ্র মাউন্ট হেরমন সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

সিরিয়ার গণমাধ্যম বলছে, একটি ইসরায়েলি বিমান আক্রমণ প্রতিহত করেছে সিরিয়া প্রতিরক্ষা বাহিনী। রোববার আইডিএফ জানিয়েছে, গোলান মালভূমির ওপর একটি রকেটের পথরোধ করেছে তারা।

সোমবার সকালে এক টুইটের মাধ্যমে এই অভিযানের খবর প্রকাশ করে আইডিএফ।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংস্থা সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস জানায়, ইসরায়েলি রকেট রাজধানী দামেস্কের নিকটবর্তী স্থানে আক্রমণ করছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা দামেস্কে ব্যাপক বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে বলে জানিয়েছেন।

রোববার চাদ সফরের সময় এক সতর্কবার্তায় তিনি বলেন, ‘আমাদের একটি নির্দিষ্ট নীতি রয়েছে, সেটি হলো সিরিয়ায় ইরানি স্থাপনায় আঘাত করা এবং যারা আমাদের ক্ষতি করার চেষ্টা করেছে তাদের ক্ষতি করা।’

এদিকে সিরিয়ায় ইরানি স্থাপনার ব্যাপারে সতর্কবার্তা জারি করেছে ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনয়ামিন নেতানিয়াহু।

সিরিয়ার অভ্যন্তরে আক্রমণ চালানোর বিষয়টি কদাচিৎ স্বীকার করে ইসরায়েল। তবে ২০১৮ সালের মে মাসে সিরিয়ার অভ্যন্তরের প্রায় সবকটি সেনাঘাঁটিতে আঘাত করার দাবি করেছিল দেশটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.