সর্বনিম্নে তামার দাম

স্টাফ রিপোর্ট

তামার দাম কমে প্রায় এক মাসের মধ্যে সর্বনিম্নে নেমেছে। বিশ্বের শীর্ষ ব্যবহারকারী দেশ চীন তামার ব্যবহার সীমিত করায় ধাতুপণ্যটির দাম কমেছে বলে মনে করছেন বাজার বিশ্লেষকরা। তামার সর্ববৃহৎ ভোক্তা দেশ চীন বর্তমানে ব্যবসায়িক খাতে ঋণ বৃদ্ধির লাগাম টানতে চাচ্ছে। এছাড়া প্রণোদনা ব্যয় কমিয়ে আনার পরিকল্পনা করছে দেশটি। এতে কমেছে তামার ব্যবহার। ফলে তামার দামও কমেছে বলে মনে করছেন তারা। খবর রয়টার্স।

এর আগে গত তিন মাসে লন্ডন মেটাল এক্সচেঞ্জে (এলএমই) ধাতুপণ্যটির দাম কমতে দেখা গেছে। দরপতনের ধারাবাহিকতায় সর্বশেষ তামার দাম গত ৫ মার্চ টনপ্রতি ৮ হাজার ৭৭৬ ডলারে স্থির হয়। পরে সেখান থেকে দশমিক ১ শতাংশ কমে চলতি সপ্তাহে এর বাজারমূল্য দাঁড়ায় টনপ্রতি ৮ হাজার ৬৯৫ ডলারে।

স্বতন্ত্র পরামর্শক রবিন ভাড় বলেন, চীন কর্তৃক তামার ব্যবহার সীমিত করা ও আমদানি কমিয়ে দেয়া ধাতুপণ্যটির বৈশ্বিক বাজারে প্রভাব ফেলেছে। তামার ব্যবহার আরো কত কমাবে চীন সে উদ্বেগ বিরাজ করছে রফতানিকারকদের মধ্যে। এছাড়া যেকোনো কারণেই হোক চীনের অর্থনীতির শ্লথগতি ভাবিয়ে তুলছে ব্যবসায়ীদের।

সম্প্রতি প্রকাশিত এক পরিসংখ্যান বলছে, মার্চে চীনের ক্ষুদ্র ও ব্যক্তিমালিকানাধীন শিল্প-কারখানাগুলোর কার্যক্রম গত বছরের তুলনায় কিছুটা মন্থর গতিতে চলছে। এর বিপরীতে দেশটির বৃহৎ ও রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন শিল্প-কারখানাগুলোতে কর্মচাঞ্চল্য বিরাজ করছে।

ভাড় বলছেন, লন্ডন মেটাল এক্সচেঞ্জে তামার মজুদ দিনকে দিন বেড়েই চলছে। এর মানে হলো সাম্প্রতিক সময়ে তামার চাহিদা কমছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *