শিশুর চোখ ঠিক আছে বুঝবেন যেভাবে

বর্তমানে শিশুরা অনেক বেশি টেলিভিশনে আসক্ত। অনেক শিশু তো সারা দিনই প্রায় স্ক্রিনের সামনে বসে থাকে। আর কী বা করবে তারা? খেলার জায়গারও যে অভাব খুব!

তবে এই টিভির নেশা চোখের ওপর চাপ বাড়ায়। শিশুদের চোখের বিষয়ে বাবা-মাকেই খেয়াল রাখতে হবে। শিশুর চোখে কোনো সমস্যা আছে কি না, জানতে এক বছরে অন্তত একবার পরীক্ষা করানো জরুরি।

জীবনধারাবিষয়ক ওয়েবসাইট বোল্ডস্কাইয়ের শিশু বিভাগে জানানো হয়েছে শিশুর চোখের সমস্যার কিছু লক্ষণের কথা। এগুলো দেখলে অভিভাবকদের সতর্ক হওয়া প্রয়োজন।

১. চোখ ঘষা
ঘুম থেকে উঠে চোখ ঘষা স্বাভাবিক। তবে যদি বারবার চোখ ঘষে, একে এড়িয়ে যাবেন না।

২. মাথাব্যথা
মাথাব্যথার বিভিন্ন ধরন ও কারণ রয়েছে। তবে যদি শিশুর সারা দিনই মাথাব্যথা করে, চিকিৎসকের কাছে যান।

৩. এক চোখ বন্ধ
যদি খেয়াল করেন, শিশু এক চোখ ঢেকে বা বন্ধ করে টেলিভিশন দেখছে, তাহলে হয়তো দৃষ্টিতে সমস্যা হচ্ছে। এমন হলেও দ্রুত চিকিৎসকের কাছে যান।

৪. উজ্জ্বল আলোতে চোখ বন্ধ করে ফেলা
শিশু যদি বেশি বা উজ্জ্বল আলোতে চোখ বন্ধ করে ফেলে এবং চোখ মেলতে তার যদি কষ্ট হয় আর কম আলোতে চোখ খুলতে পারে, তাহলে চিকিৎসকের সঙ্গে দেখা করুন।

৫. খুব কাছে গিয়ে দেখা
যদি টেলিভিশন বা কম্পিউটার দেখার সময় বারবার কাছে চলে যায়, তাহলে ভাবনার বিষয়। দূরে দেখতে সমস্যা হলে এমন হতে পারে।

৬. চোখের বলের নড়াচড়া
যদি টডলার (এক থেকে তিন বছরের) শিশুদের ক্ষেত্রে চোখের মণির নড়াচড়ায় কোনো অস্বাভাবিকতা খেয়াল করেন, তাহলে দ্রুত চিকিৎসকের কাছে যান। এটি চোখের রোগের লক্ষণ।

৭. লাল চোখ
লাল চোখ বা চোখে লাল ভাব দুশ্চিন্তার বিষয়। এটি কনজাংটিভাইটিস অথবা চোখের রোগের লক্ষণ।

৮. চোখব্যথা
যদি আপনার শিশু বারবার চোখব্যথার অভিযোগ করে এবং চোখে ঘোলা দেখতে পায় বলে, তাহলে চিকিৎসকের কাছে যান।

Leave a Reply

Your email address will not be published.