শিল্পঋণে খেলাপি বেড়েছে ৩৩ শতাংশ

শিল্পঋণ বিতরণ বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে মেয়াদোত্তীর্ণ ঋণ ও খেলাপি ঋণের পরিমাণও বেড়েছে আশঙ্কাজনক হারে। বিগত অর্থবছরের জুলাই থেকে মার্চ মাস পর্যন্ত এই খাতে খেলাপি ঋণ বেড়েছে ৩২.৯৫ শতাংশ। বাংলাদেশ ব্যাংকের সর্বশেষ প্রতিবেদন থেকে এই তথ্য পাওয়া যায়।

২০১৭-১৮ অর্থবছরের জুলাই থেকে মার্চ মাস পর্যন্ত খেলাপি ঋণের পরিমাণ ৩৬ হাজার ৯৮০ কোটি টাকা। অন্যদিকে মেয়াদোত্তীর্ণ ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৬০ হাজার ৫৫৬ কোটি টাকায়। যা আগের অর্থবছরের তুলনায় ১৮ শতাংশ বেশি।

আলোচ্য সময়ে ২ লাখ ৫০ হাজার ৭৬০ কোটি টাকার শিল্পঋণ বিতরণ করেছে ব্যাংকগুলো। যা ২০১৬-১৭ অর্থবছরের তুলনায় ১২ শতাংশ বেশি। অন্যদিকে আদায়ের পরিমাণটাও বেড়েছে ১০ শতাংশ। যার পরিমাণ ১ লাখ ৯৯ হাজার ৯৯৫ কোটি টাকা।

২০১৭-১৮ অর্থবছরের জুলাই-মার্চ সময় শেষে বিতরণকৃত মোট শিল্প ঋণের মধ্যে চলতি মূলধন ঋণের পরিমাণ ২ লাখ ১৩৩ কোটি টাকা যা মোট বিতরণের ৭৯.৮১ শতাংশ। এছাড়া মেয়াদি ঋণের পরিমাণ ৫০ হাজার ৬২৬ কোটি টাকা যা মোট বিতরণের ২০.১৯ শতাংশ।

২০১৭-১৮ অর্থবছরের জুলাই-মার্চ সময় শেষে ব্যাংকের ধরণভেদে রাষ্ট্রায়ত্ব বাণিজ্যিক ব্যাংকসমূহের ৩৪.৪৫ শতাংশ, বেসরকারি বাণিজ্যিক ব্যাংকসমূহের ৫.১৬ শতাংশ, বিদেশি ব্যাংকসমূহের ২.৯৮ শতাংশ, বিশেষায়িত ব্যাংকসমূহের ৪৭.২৪ শতাংশ এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠানসমূহের খেলাপি ঋণের হার ৮.৭৩ শতাংশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.