যে কারনে জীবন দেবেন নেইমার

স্টাফ রিপোর্টার

জাতীয় দলের জার্সিতে বরাবরই উজ্জ্বল নেইমার। ব্রাজিলের হয়ে জিতেছেন অলিম্পিক ও কনফেডারেশনস কাপ। কিন্তু সবচেয়ে আরাধ্য যে ট্রফি, সেই বিশ্বকাপটা হাতে তোলার সৌভাগ্য হয়নি পিএসজি সুপারস্টারের।

২০১০ সালে অভিষেকের পর দুটি বিশ্বকাপ খেলেছেন নেইমার। ২০১৪ সালে ঘরের মাঠে বিশ্বকাপে তাকে নিয়েই স্বপ্নের জাল বুনেছিল সেলেসাওরা। কিন্তু চোটের কারণে তিনি ছিটকে পড়ার পরই ভেঙে পড়ে দল।

সেমিফাইনালে জার্মানির কাছে লজ্জার ৭-১ গোলে হেরে বিদায় হয় ব্রাজিলের। ২০১৮ সালে রাশিয়ায় দারুণ ছন্দে থাকা ব্রাজিলও কোয়ার্টার ফাইনালের বেশি এগোতে পারেনি।

তবে এবার আর হতাশা নিয়ে ফিরতে চান না নেইমার। বছরের শেষভাগে কাতার বিশ্বকাপ। নেইমার এবার বিশ্বকাপ ট্রফি হাতে তুলতে নিজের জীবন দিতেও প্রস্তুত।

ব্রাজিলিয়ান ক্লাব ফ্লামেঙ্গোর ফুটবলার ডিয়েগো রিবাসের সাথে এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘আমি বিশ্বকাপ শিরোপা হাতে বছর শেষ করতে চাই। আমি নিজেকে শারীরিক ও মানসিকভাবে প্রস্তুত করছি, যাতে সবকিছু ঠিকঠাক ভাবে করতে পারি।’

ব্রাজিলের ইতিহাসের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ গোলস্কোরার যোগ করেন, ‘আমি এটার (বিশ্বকাপ) জন্য আমার জীবন দিয়ে দেব। আমি দুইবার বিশ্বকাপ খেলেছি, তাই এই টুর্নামেন্টর ধরন আমার ভালোই জানা। আপনি অপ্রস্তুত থাকলে সুযোগ আপনার জন্য অপেক্ষা করবে না। তাই আমি এটাকে ছেড়ে দিতে পারি না।’

Leave a Reply

Your email address will not be published.