যে কারণে নির্বাচন থেকে সরে গেলেন শাকিব খান

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সংসদ সদস্য পদে নির্বাচনের জন্য আওয়ামী লীগ থেকে প্রার্থী হবেন চিত্রনায়ক শাকিব খান। সেজন্য আজ রোববার তার মনোনয়নপত্র কেনারও কথা ছিলো। এমনটাই শোনা যাচ্ছিলো শনিবার বিকেল থেকে।

কিন্তু শনিবার রাত ১০টার দিকে নিজের সিদ্ধান্ত বদলে ফেলেন তিনি। নির্বাচন করবেন না বলেই সিদ্ধান্ত নেন। গণমাধ্যমকে এই তথ্য নিজেই নিশ্চিত করেছেন শাকিব খান।

কেন সরে দাঁড়ালেন শাকিব খান? আওয়ামী লীগে অনাগ্রহ নাকি অন্য কোনো সমস্যা? সে নিয়ে চলছে নানা কানাঘুষা। তবে শাকিব খান জানান, ‘বিভিন্ন গণমাধ্যমে আমার নির্বাচনে আসার সংবাদ প্রকাশের পর সোশ্যাল মিডিয়ায় আমার ভক্তদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। ভক্তদের মধ্যে অনেকেই চাইছেন না এখনই কোনো ধরনের রাজনীতির সঙ্গে সরাসরি সম্পৃক্ত হই আমি। তারা শাকিবকে শুধু সিনেমাতেই দেখতে চান। যে ভক্তদের জন্য আমি তারকা সেইসব ভক্তদের আমি কষ্ট দিতে চাই না।’

ভক্তদের কথা রেখেই নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন শাকিব খান। শনিবার রাতে ঘনিষ্ঠজনদের নিয়ে তিনি আলোচনায় বসে ভক্তদের মতামতকে প্রাধান্য দিয়ে এই সিদ্ধান্ত নেন।

ভবিষ্যতে আবারও সিদ্ধান্ত বদল হবে কি না এ ব্যাপারে জানতে চাইলে শাকিব খান বলেন, ‘আপাতত সম্ভাবনা নেই। তবে ভবিষ্যৎ কেবল আল্লাহ জানেন।’

তবে তিনি জানান, আসছে শিল্পী সমিতির নির্বাচনে তিনি সভাপতি পদে অংশ নেবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.