বৈশ্বিক তামার দাম ১০ বছরের শীর্ষে

স্টাফ রিপোর্ট

পশ্চিমা বিশ্বের দেশগুলো করোনা মহামরীর ধকল কাটিয়ে উঠতে শুরু করায় আবারো চাঙ্গা হয়ে উঠছে বৈশ্বিক তামার বাজার। তামার বাজারদর এ সপ্তাহের শুরুতে বড় পরিসরে বেড়েছে। এছাড়া সবুজ বিপ্লবের অংশ হিসেবে বৈদ্যুতিক গাড়ি ও নবায়নযোগ্য জ্বালানি চাহিদা বৃদ্ধি পাওয়ায় ব্যবহারিক এ ধাতুর চাহিদা এখন আকাশচুম্বী। চাহিদা বৃদ্ধি পাওয়ায় ধাতুটির দাম বেড়ে ১০ বছরের সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌঁছেছে। খবর রয়টার্স ও বিজনেস রেকর্ডার।

তামার বৈশ্বিক বাজার আদর্শ লন্ডন মেটাল এক্সচেঞ্জে ধাতুটির দাম গত ১০ বছরের সব রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে। ২০১১ সালে ব্যবহারিক এ ধাতুর দাম ছিল ১০ হাজার ১৯০ ডলার। এ বছর দাম ২ দশমিক ৯ শতাংশ বেড়ে ১০ হাজার ৩৮৫ ডলারে দাঁড়িয়েছে।

জুনের ভবিষ্যৎ সরবরাহ চুক্তিতে সবচেয়ে বেশি বিক্রি হওয়া তামার দাম সাংহাই ফিউচারস এক্সচেঞ্জে ২ দশমিক ৭ শতাংশ বেড়েছে। টনপ্রতি এ তামার দাম ১১ হাজার ৬০৩ ডলারে পৌঁছেছে। এটি ২০০৬ সালের মে মাসের পর সর্বোচ্চ।

চীন শিল্প ধাতু ব্যবহারের দিক থেকে বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় দেশ। চলতি বছর করোনা মহামারীর সংকট কাটিয়ে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির ধারায় ফিরতে শুরু করেছে দেশটি। এরই পরিপ্রেক্ষিতে চীন তামা আমদানির পরিমাণ বাড়িয়ে দিয়েছে। দেশটির তামা আমদানি বেড়েছে ৩৮ শতাংশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *