বঙ্গবন্ধু হলে রিডিং রুমে সংকটে শিক্ষার্থীদের মেধা ব্যাহত হচ্ছে

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলে রিডিং রুমে দেখা মিলছেনা শিক্ষার্থীদের। হল প্রতিষ্ঠার প্রায় ৭ বছর পরেও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার সুন্দর পরিবেশের নিমিত্তে তৈরি করতে পারেনি একটি রিডিং রুমও। রিডিং রুম না থাকায় হলের আবাসিক শিক্ষার্থীরা পরীক্ষার আগে ভাল প্রস্তুতি নিয়ে পরীক্ষা দিতে পারছেনা বলে অভিযোগ রয়েছে।

সরেজমিনে জানা যায়,  ৫ম তলা বিশিষ্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলে ৪১ টি কক্ষে প্রায় ৩০০ শিক্ষার্থী থাকে।  হলটিতে প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীরা গণরুমে থাকে। একরুমে থাকে প্রায় ৪০ জন। গাদাগাদি করে এক বেডে দুইজন থাকা শিক্ষার্থীরা পরীক্ষার ভাল প্রস্তুতি নিতে পারছেনা। নানা শব্দের মাঝেই পড়াশোনা করে পরীক্ষা দিতে হচ্ছে।

হলে গান-বাজনা ও প্রতিদিন কারো না কারো জন্মদিন উৎযাপন করায়  সবসময় হৈচৈ বিরাজ করে।  কারো পরীক্ষা থাকলে রিডিং রুমে গিয়ে পড়াশোনা করবে এ ব্যবস্থাও নেই। রিডিং রুম না থাকায় শিক্ষার্থীরা  মনোযোগ দিয়ে পড়াশোনা করতে পারছেনা। এমনকি তাদের ভবিষ্যৎ জীবন নিয়েও হতাশায় কেই কেউ।

এছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪টি হল রয়েছে। এখানে কাজী নজরুল ইসলাম এবং নওয়াব ফয়জুন্নেছা চৌধুরানী হলে রিডিং রুম থাকলেও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল ও শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত হলে কোনো রিডিং রুমের ব্যবস্থা নেই।

বঙ্গবন্ধু হলের ১ম বর্ষের আবাসিক শিক্ষার্থী মোহাম্মদ  পাবেল রানা বলেন, ” আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয় অনেক আশা ও স্বপ্ন নিয়ে। আমি এখানে যে বসে পড়াশুনা করবো পরিবেশতো দুরের কথা কোনো রিডিং রুমও নেই।  গণরুমে পড়াশোনা করতে পারি না। সামনে সেমিস্টারের জন্য কীভাবে পড়াশোনা করবো তা নিয়ে আমি চিন্তিত।”

বঙ্গবন্ধু হলের পরিসংখ্যান বিভাগে ২য় বর্ষে আবাসিক  শিক্ষার্থী অজয় চন্দ্র বর্মন  বলেন, “একটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের হলে রিডিং রুম হচ্ছে শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যৎ নির্ধারণের জায়গায় ও জ্ঞান   অর্জনের কেন্দ্র কিন্তু তা এখানে বিপরীত, আমরা ভবিষ্যৎ নিয়ে হতাশায় রয়েছি, এখন আমার মিডটার্ম পরীক্ষা চলছে কিন্তু আমাকে না পড়েই দিতে হচ্ছে ।  তাই এই হলের রিডিং রুম খুবই দরকার।

হলের প্রভোস্ট মো. জিয়া উদ্দিন বলেন, “আমি হলের দায়িত্বে আসার আগে হলে রিডিং রুমের জন্য কোনো জায়গা বরাদ্দ ছিল না,  আমি হলের দায়িত্বে আসার পর প্রথমেই রিডিং রুমের জন্য নির্দিষ্ট জায়গা ঠিক করেছি। রিডিং রুমের জন্য আসবাবপত্র প্রয়োজন, আমি এটা প্রশাসনকে জানিয়েছি। আসবাবপত্রের ব্যবস্থা হলেই রিডিং রুম চালু করা হবে।”

Leave a Reply

Your email address will not be published.