ফরাসি চলচ্চিত্রের সংলাপ প্রত্যাহার চেয়ে বিজিএমইএর চিঠি

স্টাফ রিপোর্ট

ফরাসি চলচ্চিত্র ‘দ্য লাস্ট মার্সেনারি’র একটি সংলাপ নিয়ে আপত্তি জানিয়ে তা প্রত্যাহারের জন্য নেটফ্লিক্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) টেড অ্যান্থনি স্যারান্ডেসকে চিঠি দিয়েছেন তৈরি পোশাক শিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএর সভাপতি ফারুক হাসান।

সোমবার (৯ আগস্ট) বিজিএমইএর এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

‘দ্য লাস্ট মার্সেনারি’ চলচ্চিত্রটি পরিচালনা করেছেন ডেভিড শ্যারন। বিশ্বখ্যাত স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম নেটফ্লিক্সে গত ৩০ জুলাই চলচ্চিত্রটি মুক্তি পায়।

বিজিএমইএ দাবি করেছে, ‘দ্য লাস্ট মার্সেনারি’ চলচ্চিত্রে বাংলাদেশি পোশাকবিরোধী প্রচারণা ও অবমাননাকর সংলাপ আছে। চলচ্চিত্রের প্রধান তারকা দ্য মিস্ট তার সংলাপে বাংলাদেশের তৈরি পোশাক নিয়ে নেতিবাচক মন্তব্য করেছেন। জাতি হিসেবে যা বাংলাদেশিদের অনুভূতি ও গর্বকে আহত করে।

নেটফ্লিক্সের সিইওকে লেখা চিঠিতে ফারুক হাসান উল্লেখ করেন, চলচ্চিত্রটিতে একটি সংলাপ ছিল এমন, ‘ইয়েস, বুলেটপ্রুফ ট্যাক্সেডো মেড ইন ফ্রান্স। আই উড বি ডেড ইফ ইট ওয়্যার বাংলাদেশ।’ যার বাংলা অর্থ দাঁড়ায়, ‘বুলেটপ্রুফ পোশাকটি ফ্রান্সে তৈরি। যদি এটি বাংলাদেশে তৈরি হতো, তবে হয়তো মরেই যেতাম।’ এখন সংলাপটি ওই চলচ্চিত্র থেকে বাদ দিতে নেটফ্লিক্সের সিইওকে অনুরোধ জানিয়েছেন বিজিএমইএ সভাপতি। একই সঙ্গে যত দিন সেটি করা না হবে, তত দিন চলচ্চিত্রটি প্রচার বন্ধ রাখার দাবি করেন তিনি।

বিজিএমইএর সভাপতি রোববার নেটফ্লিক্সের সিইওর পাশাপাশি এ বিষয়ে সহযোগিতা চেয়ে চলচ্চিত্রটির পরিচালক ডেভিড শ্যারন, বাংলাদেশ সরকারের পররাষ্ট্রসচিব, তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের সচিব, ফ্রান্সে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত, ওয়াশিংটনে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এবং ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে চিঠি দিয়েছেন।

সোমবার দুপুরে আনুষ্ঠানিকভাবে বিষয়টি জানায় বিজিএমইএ কর্তৃপক্ষ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *