দরপতনের তালিকায় মিউচ্যুয়াল ফান্ডের আধিপত্য

স্টাফ রিপোর্ট

মিউচ্যুয়াল ফান্ড একের পর এক আকর্ষণীয় লভ্যাংশ ঘোষণা করলেও তা বিনিয়োগকারীদের আকৃষ্ট করতে পারছে না। বিনিয়োগকারীরা মিউচ্যুয়াল ফান্ডমুখী হচ্ছেন না। ফলে আকর্ষণীয় লভ্যাংশ দেওয়ার পরও মিউচ্যুয়াল ফান্ডগুলোর দাম তলানিতে পড়ে রয়েছে।

গত সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) দাম কমার শীর্ষ চারটি স্থানের সবকটি দখল করেছে মিউচ্যুয়াল ফান্ড।

এর মধ্যে বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ হারানোর শীর্ষ স্থানটি দখল করেছে গ্রামীণ ওয়ান স্কিম টু। বিনিয়োগকারীরা ফান্ডটি কিনতে আগ্রহী না হওয়ায় সপ্তাহজুড়েই দামে কমেছে।

গেল সপ্তাহজুড়ে মিউচ্যুয়াল ফান্ডটির দাম কমেছে ১৫ দশমিক ৮৯ শতাংশ। টাকার অংকে প্রতিটি ইউনিটের দাম কমেছে ৩ টাকা ৪০ পয়সা। সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস শেষে ফান্ডটির দাম দাঁড়িয়েছে ১৮ টাকা, যা আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস শেষে ছিল ২১ টাকা ৪০ পয়সা।

তবে দাম কমলেও সম্প্রতি ফান্ডটির ট্রাস্টি বিনিয়োগকারীদের জন্য ১৩ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। এর আগে ২০২০ সালে ৭ শতাংশ এবং ২০১৯ সালে ৯ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেয় ফান্ডটি।

গ্রামীণ ওয়ান স্কীম টু’র পরেই গেল সপ্তাহে বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ হারানোর তালিকায় ছিল এনএলআই ফার্স্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ড। গেল সপ্তাহে এই ফান্ডটির দাম কমেছে ১৩ দশমিক শূন্য ৭ শতাংশ। এতে সপ্তাহ শেষে ফান্ডটির দাম দাঁড়িয়েছে ১৫ টাকা ৩০ পয়সা। অথচ সম্প্রতি এই ফান্ডটির ট্রাস্টি বিনিয়োগকারীদের জন্য সাড়ে ১৭ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে।

বিনিয়োগকারীদের জন্য আকর্ষণীয় লভ্যাংশ ঘোষণা করা আরেক ফান্ড গ্রিন ডেল্টা মিউচ্যুয়াল ফান্ড। এই ফান্ডটির ট্রাস্টি ২০২১ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত বছরে বিনিয়োগকারীদের ১২ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেওয়ার পরও গেল সপ্তাহে ফান্ডটির দাম কমেছে ১০ দশমিক ৩১ শতাংশ। এতে ফান্ডটির দাম দাঁড়িয়েছে ৮ টাকা ৭০ পয়সা।

ডিবিএইচ ফার্স্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ট্রাস্টি ২০২১ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত বছরে বিনিয়োগকারীদের ১২ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছে। এরপরও গেল সপ্তাহে এই ফান্ডটির দাম বড় অংকে কমেছে। গেল সপ্তাহজুড়ে ফান্ডটির দাম কমেছে ১০ দশমিক ২০ শতাংশ। এতে ফান্ডটির প্রতিটি ইউনিটের দাম দাঁড়িয়েছে ৮ টাকা ৮০ পয়সা।

এই চার মিউচ্যুয়াল ফান্ডের পরেই গত সপ্তাহে দাম কমার তালিকায় ছিল মেট্রো স্পিনিং। সপ্তাহজুড়ে এই কোম্পানিটির শেয়ার দাম কমেছে ৯ দশমিক ১৪ শতাংশ। পরের স্থনে রয়েছে আরেক মিউচ্যুয়াল ফান্ড আইসিবি এমপ্লয়িজ প্রভিডেন্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ড। এই ফান্ডটির দাম কমেছে ৬ দশমিক ৯৮ শতাংশ।

এছাড়া গত সপ্তাহে দাম কমার শীর্ষ ১০ প্রতিষ্ঠানের তালিকায় থাকা- মাইডস ফাইন্যান্সের ৬ দশমিক ৭৩ শতাংশ, প্রাইম ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্টের ৬ দশমিক ৬ শতাংশ, উত্তরা ফাইন্যান্সের ৫ দশমিক ৩৫ শতাংশ এবং সাউথ বাংলা এগ্রিকালচার অ্যান্ড কমার্স ব্যাংকের ৫ দশমিক ২৮ শতাংশ দাম কমেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *