ডোবায় পড়ে আছে বিপুল পরিমাণ ছেড়া টাকা

বগুড়ার শাজাহানপুরের জালশুকা এলাকার সড়ক ও সড়কের পাশের ডোবায় পড়ে আছে বিপুল পরিমাণ ছেড়া করে ছেঁড়া টাকা। এখানে ১০০, ৫০০ ও ১০০০ টাকার ছেঁড়া নোট আছে। আজ মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার খাউড়া ব্রিজের পূর্ব দিকের সড়ক ও পাশের ডোবায় এমন চিত্র দেখা গেছে।

পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন জানান, আজ সকালে সড়কের ওপর বিপুল পরিমাণ ছেড়া টাকা দেখে পুলিশকে খবর দেন স্থানীয়রা। খবর শুনে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। পাশের ডোবায় টাকার টুকরো ভাসছিল। এটা দেখে স্থানীয় লোকজনকে সেখানে নামিয়ে দেওয়া হয়। তখন সেখানে অসংখ্য টাকার কুচি পাওয়া যায়। ওই ডোবা থেকে কয়েক বস্তা টুকরো টাকা সংগ্রহ করা হয়েছে। এর দুই বস্তা আলামত হিসেবে পুলিশ এবং এক বস্তা র‌্যাব নিয়ে গেছে।

ওই ডোবায় ছেঁড়া টাকা তোলার কাজে ব্যস্ত শাহজাহান মণ্ডল বলেন, ২২ সেপ্টেম্বর রোববার সকালে স্থানীয় দুজন নারী বস্তায় করে টুকরো টাকা এখান থেকে সংগ্রহ করে পাশের গ্রামে নিজেদের বাড়িতে নিয়ে যান। জ্বালানি হিসেবে ব্যবহার করাই ছিল তাঁদের উদ্দেশ্য। এটা শোনার পর তিনিসহ বেশ কয়েকজন এখানে এসে দেখেন, ঘটনা সত্য। তবে বিষয়টি আজ পুলিশকে জানানো হয়।

ট্রাক থেকে টাকা ফেলার ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী জালশুকা উত্তরপাড়া উচ্চবিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র জাহিদ মিয়া বলে, ২১ সেপ্টেম্বর শনিবার রাতে সে মাছ ধরতে যাচ্ছিল। তখন সে দেখতে পায়, হলুদ রঙের একটি ট্রাক থেকে টাকা ফেলে দেওয়া হচ্ছে। সে তখন চালকের কাছে জানতে চায়, এত টাকা কোথা থেকে এল। চালক তখন তাকে সেখান থেকে তাড়িয়ে দেন। মাছ ধরে ভোরের দিকে ফেরার সময় সে দেখে, দুজন রাস্তা থেকে বস্তায় করে টাকা নিয়ে যাচ্ছেন।

শাজাহানপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ  বলেন, স্থানীয়দের কাছ থেকে ঘটনার খবর পাওয়ার পরপরই পুলিশ এখানে আসে। এখনো উদ্ধার তৎপরতা চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.