ডেইমলারের আয় বৃদ্ধির পূর্বাভাস

স্টাফ রিপোর্ট

নভেল করোনাভাইরাস মহামারীর প্রভাব সত্ত্বেও ২০২১ সালে বিক্রি ও আয় উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পাবে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে জার্মান অটোমোবাইল জায়ান্ট ডেইমলার। মার্সিডিজ বেঞ্জের নির্মাতা এ প্রতিষ্ঠান জানিয়েছে, বিশ্বজুড়ে গাড়ি উৎপাদনকে ধীর করে দেয়া সেমিকন্ডাক্টর চিপের বর্তমান সংকট চলতি বছরের শেষ নাগাদ সমাধান হতে পারে। খবর এএফপি।

ডেইমলারের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ওলা কালেনিয়াস একটি বিবৃতিতে বলেন, আমরা নিশ্চিত যে বর্তমান বাজারের পরিস্থিতি অব্যাহত থাকলে ইতিবাচক গতি বজায় রাখতে পারব।

মহামারীতে বাড়িতে থেকে পড়াশোনা ও অফিসের কাজ বেড়ে যাওয়ায় ব্যক্তিগত ইলেকট্রনিক পণ্যের আকাশছোঁয়া চাহিদা তৈরি হয়। ফলে বিশ্বজুড়ে সেমিকন্ডাক্টর চিপের তীব্র ঘাটতি দেখা দিয়েছে।

গত বছর ডেইমলার নিট মুনাফা আগের বছরের তুলনায় ৪৮ শতাংশ বেড়ে ৪০০ কোটি ইউরোতে পৌঁছেছে। ২০১৯ সালে এককালীন বিনিয়োগের কারণে সংস্থাটির মুনাফা কমে গিয়েছিল। সংস্থাটি জানুয়ারিতে সুদ ও কর পরিশোধের আগে ৬৬০ কোটি ইউরো আয়ের প্রাথমিক হিসাব দিয়েছে।

মহামারীজনিত কারণে ২০২০ সালের শুরুতে নাটকীয় মন্দার পর চতুর্থ প্রান্তিকে সংস্থাটির কার্যক্রম প্রত্যাবর্তন হয়েছিল। ডেইমলার জানিয়েছিল, ২০২১ সালে আরো অপ্রত্যাশিত মহামারীজনিত সংকট সৃষ্টি না হলে বিশ্বজুড়ে অর্থনীতি দৃঢ়ভাবে প্রত্যাবর্তন করবে বলে তারা আশাবাদী।

গোষ্ঠীটি ফেব্রুয়ারির শুরুর দিকে ঘোষণা করেছিল, সংস্থাটি তার ট্রাক বিভাগটি আলাদা করবে এবং শীর্ষ বিক্রি হওয়া বিলাসবহুল মার্সিডিজ বেঞ্জের নাম অনুসারে নামকরণ করবে। আর নতুন ট্রাক সংস্থার শেয়ারগুলো গ্রুপটির বিদ্যমান শেয়ারহোল্ডারদের দেয়া হবে।

তবে ডেইমলার সতর্কও করেছে, চলতি বছরের দ্বিতীয়ার্ধে যে ইতিবাচক প্রভাবগুলোর প্রত্যাশা করা হচ্ছে, তা বর্তমান পরিস্থিতির আলোকে পুরোপুরি নিশ্চিত হওয়া যায় না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *