টিবি রোগে আক্রান্ত অভিনেতা ফারুক

ঢাকাই সিনেমার মিয়া ভাইখ্যাত কিংবদন্তি অভিনেতা ও ঢাকা-১৭ আসনের সংসদ সদস্য ফারুক গুরুতর অসুস্থ। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে সিঙ্গাপুর নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সেখানে মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে তার।

কিছু টেস্টের পর তার রক্তে টিবি ধরা পড়েছে। বর্তমানে সে অনুযায়ীই চিকিৎসা চলছে। নায়ক ফারুক আজ রোববার (২৮ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় এ কথা জানান।

সিঙ্গাপুরে এ অভিনেতার সঙ্গে গেছেন তার স্ত্রী ফারহানা ফারুক। কিন্তু মাউন্ট এলিজাবেথ হাতপাতালে ভর্তির পর থেকেই ফারুক ও তার স্ত্রী ফারহানা ফারুক করোনাভাইরাসের কারণে কোয়ারেন্টানে চলে যান। ফলে পাশাপাশি রুমে থেকেও দুজনের মধ্যে দেখা হতো না। তাদের কথা হতো ফোন ও ভিডিও কলে।

অবশেষে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন পর্ব শেষে হাসপাতালের নিয়ম মেনে স্ত্রীর দেখা পেলেন ফারুক। এ প্রসঙ্গে ফারুক বলেন, ‘আমাদের দাম্পত্য জীবনের ২৮-২৯ বছরে এই প্রথম আমরা এতদিন আলাদা থাকলাম। পাশাপাশি রুমে আছি কিন্তু কাছাকাছি নয়। আমার শরীর নিয়েও সে চিন্তিত ছিল। যাক, অবশেষে কোয়ারেন্টাইন পর্ব শেষ হলো এটাই স্বস্তি।’

চিকিৎসা কেমন চলছে জানতে চাইলে নায়ক ফারুক বলেন, ‘বেশ ভালোই আলহামদুলিল্লাহ। বেশকিছু টেস্ট করা হয়েছে। যে সমস্যাটা ছিল রোগ ধরা পড়ছিল না। সেটা এবার জানা গেছে। আমার রক্তে টিবি রোগ ধরা পড়েছে। এখানে ডাক্তার লাই চুংসহ চারজন বিশেষজ্ঞের অধীনে আমার চিকিৎসা চলছে।’

তিনি জানান, আগামী চার সপ্তাহ অবজারভেশনে থাকতে হবে। সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *