জনপ্রিয়তার শীর্ষে যে ১০ অ্যাপ

স্টাফ রিপোর্টার

ছরজুড়ে চোখ ধাঁধানো সব প্রযুক্তিতে মেতে ছিলেন প্রযুক্তিপ্রেমীরা। সঙ্গে ছিল নজরকাড়া কিছু অ্যাপ্লিকেশনও। নতুন কিছু অ্যাপ যেমন দৃষ্টি কেড়েছে সবার, তেমনি পুরোনোগুলাের জনপ্রিয়তাও বেড়েছে সমান তালে।

প্রযুক্তির বিপ্লব ঘটেছে সবখানেই। মহামারিতে ঘরবন্দি সময়টাতে বেড়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আনাগোনা। গবেষণা বলছে এ পরিসংখ্যান ৭২ শতাংশ। শিক্ষা থেকে শুরু করে সব ধরনের সেবায় অ্যাপের ব্যবহার। এগুলোর ব্যবহার অনলাইন কার্যক্রমের ধারাই বদলে দিয়েছে।

জীবন বদলে প্রযুক্তির ব্যবহারকে এক ভিন্ন উচ্চতায় নিয়ে গেছে অ্যাপস। চলুন দেখে নেওয়া যাক ২০২১ সালে জনপ্রিয়তার শীর্ষে থাকা ১০ অ্যাপের তালিকা। প্রযুক্তিবিষয়ক সাইট কুবকোর এক প্রতিবেদনে প্রকাশ করা হয় এই তালিকা।

ফেসবুক
ফেসবুকের এক প্রতিবেদনে জানা যায়, প্রতি মাসে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক প্রতি মাসে ব্যবহার করে ২.৭ বিলিয়ন মানুষ। তরুণ প্রজন্ম থেকে শুরু করে সব বয়সী মানুষের কাছেই জনপ্রিয় এই সাইট।

এ বছর বেশ কয়েকবার ফেসবুক বিভ্রাট দেখা দিলেও এর ব্যবহারকারীর সংখ্যা কমেনি। বরং বেড়েছে। কয়েকমাস আগেই ফেসবুকের করপোরেট নাম হয়েছে মেটা। তবে প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞদের মতে, বর্তমানে তরুণ প্রজন্ম ফেসবুক থেকে টিকটক এবং ইনস্টাগ্রামে বেশি সরব।

ইউটিউব
ইউটিউব এই মুহূর্তে সামাজিক মাধ্যমের অন্যতম সাইট। বর্তমানে জনপ্রিয়তার শীর্ষ দুইয়ে অবস্থান করছে এই সাইটটি।

হোয়াটসঅ্যাপ
ফেসবুকের মালিকানাধীন আরেকটি মেসেজিং প্ল্যাটফর্ম হোয়াটসঅ্যাপ। বিশ্বের প্রায় ১০০টি দেশে ব্যবহৃত হচ্ছে এই অ্যাপটি। এর ব্যবহারকারীর সংখ্যা প্রায় ২ বিলিয়নের বেশি।

ইনস্টাগ্রাম
ইনস্টাগ্রাম ২০২১ সালের আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ প্ল্যাটফর্ম। সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপগুলোর মধ্যে অন্যতম একটি। এর ব্যবহারকারীর সংখ্যা ১.২ বিলিয়ন।

টুইটার
টুইটার কেবল ভিআইপি, রাজনীতিবিদ এবং তারকারাই বেশি ব্যাবহার করে থাকে ফলে বাংলাদেশের সাধারণ মানুষদের টুইটারের প্রতি তেমন একটা আগ্রহ নেই। ফলস্বরুপ দেশে টুইটার ব্যবহার কারীর সংখ্যা তুলনামূলকভাবে অনেক কম। তারপরও জনপ্রিয়তার শীর্ষ তালিকায় রয়েছে এই সোশ্যাল মিডিয়া সাইটটি।

টিকটক
টিকটকে বিশ্বব্যাপী ৭০০ মিলিয়নেরও বেশি ব্যবহারকারী রয়েছে। প্রযুক্তি সাইট রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে জানা যায়, ১০০ কোটি মাসিক সক্রিয় ব্যবহারকারীর মাইলফলক পেরোল টিকটক। গত বছরের জুলাইয়ের চেয়ে পরিমাণটি প্রায় ৪৫ শতাংশ বেশি। টিকটকের সবচেয়ে বড় বাজারগুলোর মধ্যে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপ, ব্রাজিল এবং দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলো।

উইচ্যাট
মেসেজিং অ্যাপগুলোর মধ্যে উইচ্যাট বর্তমানে সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত। ফেসবুক কিংবা অন্যান্য অ্যাপ ব্যবহারকারীরাও উইচ্যাট ব্যবহার করছেন। ব্যবহারকারীদের সংখ্যার বিচারে এই অ্যাপটিও রয়েছে জনপ্রিয়তার তালিকায়।

লিঙ্কডইন
লিঙ্কডইন ক্যারিয়ার নেটওয়ার্কিং সাইট হিসেবে বিশ্বে ব্যাপক জনপ্রিয়। অন্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের চেয়ে এটি কিছুটা আলাদা। পেশাদার কাজ পেতে লিঙ্কডইনে যে কেউ তৈরি করতে পারেন প্রোফাইল। কাজ পেতেও খুব সহজ হয়। মাইক্রোসফ্ট রিপোর্ট করেছে যে লিঙ্কডইন আয় মহামারির পর এ বছর বেড়েছে ২১ শতাংশ।

স্ন্যাপচ্যাট
শীর্ষস্থানীয় সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপের তালিকায় রয়েছে স্ন্যাপচ্যাট। এ বছর স্ন্যাপচ্যাটের ব্যবহারকারী বেড়েছে ১৮ শতাংশ।

জুম
জুম মহামারির সময়টাতে সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত সাইট। অনলাইন ক্লাস থেকে শুরু করে অফিস মিটিং সব কিছু চলেছে জুমে। ২০২১ সালের সেরা সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপগুলোর মধ্যে এটি অন্যতম।

এ ছাড়াও এই তালিকায় রয়েছে পিনটারেস্ট, টেলিগ্রামসহ একাধিক অ্যাপ।

সূত্র: কুবকো

Leave a Reply

Your email address will not be published.