চীনে স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি কয়লার দাম

উৎপাদন ও মজুদের ইতিবাচক ধারার ফলে সম্প্রতি চীনের কয়লা সংকট কেটেছে। শীতকালে বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য প্রয়োজনীয় পরিমাণ কয়লা মজুদ নিশ্চিত করেছে দেশটি। তা সত্ত্বেও কয়লার বাজারে সম্পূর্ণ ইতিবাচক খবর নিশ্চিত করতে পারেনি চীন। থার্মাল কয়লার দাম এখনো স্বাভাবিক স্তরের তুলনায় উচ্চ অবস্থানে রয়েছে। কর্তৃপক্ষ মনে করছে এ পরিস্থিতি খনি ও বিদ্যুতের জন্য সহনীয় স্তরের তুলনায় যথেষ্ট বেশি। খবর রয়টার্স।

বেইজিং কয়লার এ উচ্চমূল্য নিয়ে যথেষ্ট সচেতন অবস্থায় রয়েছে বলে জানায় কর্তৃপক্ষ। বিশ্লেষকরা বলছেন, কর্তৃপক্ষ একটি বিবৃতির মাধ্যমে এ পরিস্থিতি দাম সমন্বয় করার জন্য করা হয়েছিল বলে মন্তব্য করবে।

সোমবার জেংজু কমোডিটি এক্সচেঞ্জে থার্মাল কয়লার দাম ৫ দশমিক ৪ শতাংশ কমেছে। এ সময় পণ্যটির দাম দাঁড়ায় টনপ্রতি ৮২১ ইউয়ান ২০ ফেন (১২৮ ডলার ৫১ সেন্ট)। ১৯ অক্টোবর পণ্যটির দাম যেকোনো সময়ের তুলনায় সর্বোচ্চ স্তরে পৌঁছেছিল। এ সময় থার্মাল কয়লার দাম পৌঁছেছিল টনপ্রতি ১ হাজার ৯৮২ ইউয়ান। থার্মাল কয়েলের ঘাটতি ও শীতকালে বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য কয়লার পর্যাপ্ত মজুদ থাকা নিয়ে অনিশ্চয়তার দরুন এ মূল্যবৃদ্ধির ঘটনা ঘটে।

উত্তর চীনের কিনহুয়াংদাওতে কয়লার স্পট মূল্য রেকর্ড পরিমাণ দামের চেয়ে কমে এসেছে। সোমবার কিনহুয়াংদাওতে প্রতি টন থার্মাল কয়লার দাম দাঁড়ায় ১ হাজার ৯০ ইউয়ান। এর আগে প্রতি টন থার্মাল কয়লার দাম ২ হাজার ৫৪৫ ইউয়ান স্পর্শ করেছিল, যা যেকোনো সময়ের তুলনায় সর্বোচ্চ ছিল।

কয়লার বৈশ্বিক বাজারে বর্তমানে উৎপাদক, ভোক্তা ও আমাদনিকারক প্রতিটি ক্ষেত্রে শীর্ষস্থানে রয়েছে চীন। অভ্যন্তরীণ উৎপাদন ও আমদানি বাড়িয়ে দেশটি সংকট মোকাবেলা করে। সাম্প্রতিক সময়ে দেশটি কয়লা সংকট কাটিয়ে ওঠায় ভবিষ্যৎ বাজারমূল্য ৫৯ শতাংশ কমে এসেছে। তবে এটি এখনো বাজারে স্বাভাবিক বাজারমূল্য টনপ্রতি ৫৫০-৬০০ ইউয়ানের তুলনায় অনেক বেশি।

২০২০ সালের নভেম্বরে কয়লার ভবিষ্যৎ বাজারমূল্য ছিল ৪৫১ ইউয়ান। ওই বছরের শীতকালে পণ্যটির ভবিষ্যৎ বাজারমূল্য ৬০০ ইউয়ানের কিছু কম ছিল। তকে খুব সম্প্রতিই দাম এ অবস্থায় নেমে আসার ব্যাপারে কোনা আশাবাদ দেখছেন না বিশ্লেষকরা। চীনের ন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট অ্যান্ড রিফর্ম কমিশন (এনডিআরসি) কয়লার দাম কমিয়ে আনার ব্যাপারে কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, যদি অভ্যন্তরীণ উৎপাদন প্রবৃদ্ধির ধারা বজায় রাখা যায় এবং সরকার এ ব্যাপারে হস্তক্ষেপ করে, তবে কয়লার দাম আগের মতো স্বাভাবিক স্তরে নেমে আসতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.