কচি খন্দকারের ‘দুধভাত’-এ মোশাররফ করিম

স্টাফ রিপোর্টার

দীর্ঘ দেড় বছর পর আবারও পরিচালনায় ফিরলেন জনপ্রিয় অভিনেতা-নির্মাতা কচি খন্দকার। ঈদুল ফিতর উপলক্ষে নির্মাণ করেছেন নাটক ‘দুধভাত’। আর ফিরেই ষোলআনা ভরসা করেছেন দীর্ঘ দিনের সহযোদ্ধা মোশাররফ করিমের ওপর।

সম্প্রতি ঢাকার ধামরাইয়ে তিন দিন ‘দুধভাত’ এর শুটিং শেষে কচি খন্দকার বলেন, এটি একটি নির্মল আনন্দের প্রোডাকশন। ঈদের নাটক, তাই হাসি-মজা তো আছেই। তবে হাসির আড়ালে গোঁজা আছে সামাজিক বাস্তবতার বিষয়টিও। ‘দুধভাত’ নাটকে স্থানীয় নেতা সামসুল ইসলাম চরিত্রে অভিনয় করেছেন মোশাররফ।

গতানুগতিক নয়, ভিন্ন ঘরানার গল্প নিয়ে বরাবরই কাজ করে থাকেন কচি খন্দকার। এবারো তার ব্যত্যয় ঘটেনি। গল্প প্রসঙ্গে তিনি বলেন—‘ছোটবেলায় খেলতে গিয়ে যে ছেলেটি বাড়তি হতো, তাকে বলা হতো দুধভাত। সে দুই পক্ষেই খেলতে পারত। এই দুই পক্ষে খেলতে পারার মধ্য দিয়ে আসলে নীতিভ্রষ্টতা তৈরি হয়। পরবর্তী জীবনে তার আদর্শ বলে কিছু থাকে না। আর এই বিষয়টি ব্যাঙ্গাত্মকভাবে উপস্থাপন করেছি।’

এ নাটকের গল্পটি সিনেমার বলে মনে করেন কচি খন্দকার। তা জানিয়ে এই পরিচালক বলেন, ‘নাটকটির গল্প সিনেমার; আর সেই সিনেমার গল্প নিয়ে নাটক নির্মাণ করেছি। এটা ভাবলে কষ্ট লাগে। কারণ আমি ভাবি, এ ধরণের গল্প নিয়ে সিনেমা বানালে ভালো হতো। মামুনুর রশীদ, মোশাররফ করীম থেকে শুরু করে সবাই গল্পটির ভীষণ প্রশংসা করেছেন। সবকিছু মিলিয়েই মনে হয়েছে এ গল্প নিয়ে সিনেমা বানালেই ভালো হতো। যেহেতেু আগেই এই গল্প নিয়ে নাটক নির্মাণের জন্য কথা দিয়েছিলাম, সেহেতু আর বিকল্প কিছু করার ছিল না।

’ নাটকটির বিভিন্ন চরিত্রে আরো অভিনয় করেছেন—মামুনুর রশীদ, হিমি হাফিজ, আফরোজা, সূচনা সিকদার প্রমুখ। সম্প্রতি ধামরাইয়ে নাটকটির দৃশ্যধারণের কাজ শেষ হয়েছে। বাংলাভিশনের ঈদুল ফিতরের অনুষ্ঠামালায় প্রচার হবে নাটকটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.