ইউরোপের স্মার্টফোন বাজার ৮% সম্প্রসারণ

স্টাফ রিপোর্টার

২০২০ সালে করোনার অভিঘাতে স্মার্টফোন বাজার বেশ ধাক্কা খেলেও ২০২১ সালে বেশ ভালোভাবেই ঘুরে দাঁড়িয়েছে। সরবরাহ চেইন সংকট ও চিপস্বল্পতার মধ্যেও গত বছর ৮ শতাংশ সম্প্রসারণ হয়েছে ইউরোপের স্মার্টফোন বাজার। এদিকে ভারতে স্মার্টফোন বিক্রি ১১ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৬ কোটি ৯০ লাখ ইউনিট। কাউন্টারপয়েন্ট রিসার্চের সর্বশেষ প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে।

গত বছর ইউরোপের স্মার্টফোন বাজারে শীর্ষ ব্র্যান্ডগুলোর মধ্যে লড়াই তীব্রতর হয়েছে। শীর্ষ স্মার্টফোন ব্র্যান্ডগুলোয় বেশ কয়েকবার রদবদল হয়েছে। প্রথম ফাইভজি আইফোন উন্মোচনের মাধ্যমে ৩৪ শতাংশ বাজার হিস্যা নিয়ে ২০২১ শুরু করেছিল অ্যাপল। গত ফেব্রুয়ারিতে গ্যালাক্সি এস২১ সিরিজ উন্মোচনের ফলে ওই মাসে স্যামসাংয়ের বিক্রি বাড়ে ২৪ শতাংশ। এতে ইউরোপের বাজারে শীর্ষ ব্র্যান্ড হিসেবে অবস্থান পুনরুদ্ধার করে তারা। কিন্তু মে মাসে ভিয়েতনাম কারখানায় কয়েক সপ্তাহ কার্যক্রম বন্ধ থাকায় অবস্থান হারায় তারা। এতে জুনে প্রথমবারের মতো ইউরোপের বাজারে শীর্ষ স্মার্টফোন ব্র্যান্ড হয়ে দাঁড়ায় শাওমি।

চীনা ব্র্যান্ডটির চমকের পেছনে বড় ভূমিকা রেখেছে রাশিয়া, স্পেন ও ইতালির মতো বাজারে রেকর্ড স্মার্টফোন বিক্রি। ইউরোপের বাজারে শীর্ষস্থানে অবস্থান অবশ্য মাত্র এক মাসের ছিল শাওমির। জুলাইয়ে এ সিরিজের ফোনের মাধ্যমে শীর্ষস্থান পুনরুদ্ধার করে স্যামসাং। গ্যালাক্সি জি ফোল্ড ৩ ও ফ্লিপ ৩ ফোনের মাধ্যমে পরবর্তী কয়েক মাস শীর্ষস্থান ধরে রাখে দক্ষিণ কোরীয় স্মার্টফোন জায়ান্টটি। অ্যাপলের আইফোন ১৩ উন্মোচনের পর ২০২১ সালের শেষ তিন মাসে শীর্ষস্থান ধরে রাখে অ্যাপল।

বছরের দ্বিতীয়ার্ধে ইউরোপের বাজারে শাওমির বিক্রি কিছুটা কমলেও ২০২১ সালে অঞ্চলটিতে রেকর্ড সর্বোচ্চ বিক্রি করেছে চীনা স্মার্টফোন জায়ান্টটি। অপো, রিয়েলমি ও ভিভোর মতো অন্যান্য চীনা ব্র্যান্ডেরও বাজার হিস্যা বেড়েছে।

এদিকে বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ বাজার ভারতে স্মার্টফোন বিক্রি থেকে আয় ২৭ শতাংশ বেড়ে ৩ হাজার ৮০০ কোটি ডলারে দাঁড়িয়েছে। ২৪ শতাংশ বাজার হিস্যা নিয়ে শীর্ষ ব্র্যান্ড ছিল শাওমি। ৩০ হাজার রুপি বা ৪০০ ডলারের স্মার্টফোন বাজারে শাওমির বছরওয়ারি প্রবৃদ্ধি হয়েছে ২৫৮ শতাংশ।  ২০২১ সালে ভারতের বাজারে ফাইভজি ফোন বিক্রি বেড়েছে ৫৫৫ শতাংশ। ১৯ শতাংশ বাজার হিস্যার মাধ্যমে ফাইভজি স্মার্টফোন সেগমেন্টে শীর্ষে রয়েছে ভিভো। গত বছর শীর্ষ পাঁচ ব্র্যান্ডের মাধ্যমে সবচেয়ে দ্রুত সম্প্রসারমাণ ব্র্যান্ড ছিল রিয়েলমি। চতুর্থ প্রান্তিকে প্রথমবারের মতো দ্বিতীয় শীর্ষ ব্র্যান্ড হিসেবে দাঁড়ায় চীনা কোম্পানিটি।

কাউন্টারপয়েন্ট রিসার্চের প্রতিবেদনে দেখা গেছে, ভারতের সার্বিক মোবাইল হ্যান্ডসেট বাজার বছরওয়ারি ৭ শতাংশ সম্প্রসারণ হয়েছে। ফিচার ফোন বিক্রি হয়েছে ৮ কোটি ৬০ লাখ ইউনিট। ২৪ শতাংশ বাজার হিস্যার মাধ্যমে ফিচার ফোনে শীর্ষ ব্র্যান্ড ছিল আইটেল। তার পরই রয়েছে লাভা, স্যামসাং ও জিও। এ নিয়ে টানা দুই বছর ভারতের ফিচার ফোন বাজারে শীর্ষস্থান ধরে রাখল আইটেল।

Leave a Reply

Your email address will not be published.