অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগ করলে প্রশ্ন করা হবে না

অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগের ক্ষেত্রে কোনো প্রতিষ্ঠানই প্রশ্ন করতে পারবে না বলে জানিয়েছেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম। তিনি বলেন, যদি কোনো প্রতিষ্ঠান এ ধরনের প্রশ্ন তোলে তবে তাদের সেটা হবে অন্যায়, অনুচিত।

মঙ্গলবার (২৫ আগস্ট) এনবিআরের সম্মেলন কক্ষে মুজিববর্ষের কর্মসূচির অংশ হিসেবে পাইলট বেসিসে ইএফডি মেশিন কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, কেউ যদি অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগ করতে চায় সে ক্ষেত্রে কোনো প্রতিষ্ঠান প্রশ্ন করতে পারবে না। যে সমস্ত প্রতিষ্ঠান এসব নিয়ে প্রশ্ন করে আমরা তাদের সঙ্গে কথা বলেছি।

তিনি বলেন, আমরা সকলের সঙ্গে কথা বলেছি, তারা এ বিষয়ে প্রশ্ন করবে না। যদি কোনো প্রতিষ্ঠান এ ধরনের প্রশ্ন তোলে তবে সেটা অন্যায় হবে, অনুচিত হবে। তবে এক্ষেত্রে কেউ চাইলে আইনের আশ্রয় নিতে পারবে। সরকার আইন করে অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগ করতে বলেছে। এখানে কেউ প্রশ্ন রাখতে পারে না। তবে আমার মনে হয় কাউকেই আইনের আশ্রয় নিতে হবে না।

অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগে উল্লেখযোগ্য সাড়া না পাওয়া গেলেও পুঁজিবাজারে এটির প্রভাব পড়েছে বলে তিনি জানান। তিনি বলেন, পুঁজিবাজারে অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগের ফলে ক্যাশ ফ্লো বেড়েছে। তবে আয়কর রিটার্নের ক্ষেত্রে তেমন সাড়া পড়েনি। রিটার্ন আসলে বোঝা যাবে কী পরিমাণ অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগ হয়েছে।

উল্লেখ্য, চলতি ২০২০-২১ অর্থবছরের নতুন বাজেটে শেয়ারবাজারে কালো টাকা বিনিয়োগে সাদা করার যে সুযোগ দেয়া হয়েছে। এর শর্ত কিছুটা শিথিল করা হয়েছে। এছাড়া আগের নিয়ম অনুযায়ী আবাসন খাতেও অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগের সুযোগ রাখা হয়েছে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *