ভুট্টা আমদানির রেকর্ড কানাডার

স্টাফ রিপোর্টার

কানাডার ভুট্টা আমদানি রেকর্ড উচ্চতায় পৌঁছেছে। স্থানীয় বাজারে সরবরাহ কমে যাওয়া ও ঊর্ধ্বমুখী দামের কারণে আমদানি বাড়িয়েছে দেশটি। খবর আর্গাস মিডিয়া।

কানাডার শুল্ক বিভাগের তথ্য বলছে, বিদায়ী বছরের নভেম্বরে দেশটি ৫ লাখ ৭৫ হাজার ২৯৫ টন ভুট্টা আমদানি করে। অক্টোবরে আমদানির পরিমাণ ছিল ২ লাখ ৫৮ হাজার ১৪০ টন। এছাড়া ২০২০ সালের নভেম্বরে কানাডা ১ লাখ ১ হাজার ১৫ টন ভুট্টা আমদানি করেছিল। তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, গত বছরের নভেম্বরে কানাডা এক দশকের মধ্যে সর্বোচ্চ ভুট্টা আমদানি করেছে। এছাড়া করোনা মহামারীর আগের তুলনায় আমদানি বেড়েছে দ্বিগুণ।

শুল্ক বিভাগ জানায়, ভুট্টা চাহিদার প্রায় পুরোটাই যুক্তরাষ্ট্র থেকে আমদানি করে কানাডা।

নভেম্বরে দেশটি থেকে আমদানি করা হয়েছে ৫ লাখ ৭৫ হাজার ২৪০ টন। ২০২০-২১ মৌসুমে দেশটি থেকে সব মিলিয়ে ২২ লাখ ২০ হাজার টন গম আমদানি করা হয়, যা মোট আমদানির ৯৯ দশমিক ৮ শতাংশ।

বাজারসংশ্লিষ্টরা জানান, গত বছর কানাডায় শুষ্ক ও গরম আবহাওয়ায় ভুট্টা ও যব উৎপাদনে বিপর্যয় নেমে আসে। ফলে পশুখাদ্যের চাহিদা মেটাতে সেপ্টেম্বর থেকে ভুট্টা আমদানি বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয় কানাডা।

এদিকে আগামী দশকে ভুট্টার বৈশ্বিক ব্যবহার ২৫ শতাংশ বাড়ার পূর্বাভাস মিলেছে। সম্প্রতি রাবোব্যাংক এক প্রতিবেদনে এ পূর্বাভাস দিয়েছে। ভুট্টা বাণিজ্যে আরো শক্তিশালী প্রবৃদ্ধির পূর্বাভাস দিয়েছে নেদারল্যান্ডসভিত্তিক আর্থিক সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানটি।

ব্যবহার বৃদ্ধির সম্ভাবনা তৈরি হওয়ায় শীর্ষ উৎপাদক দেশগুলো কৃষিপণ্যটির রফতানি বাড়াবে বলে ধারণা করছেন বিশ্লেষকরা। বৈশ্বিক প্রবৃদ্ধির কারণে সবচেয়ে বেশি সুবিধা পাবে ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, ইউক্রেন ও যুক্তরাষ্ট্র। কারণ সব দেশেই খাদ্যশস্যটির উৎপাদন বাড়ার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। এক্ষেত্রে এগিয়ে আছে ব্রাজিল। আগামী এক দশকে বৈশ্বিক ভুট্টা উৎপাদনে বিশ্বকে নেতৃত্ব দিতে পারে লাতিন আমেরিকার এ দেশ। চলতি বছর ভয়াবহ খরা ও তুষারপাতে ভুট্টাসহ দেশটির সম্পূর্ণ কৃষি খাতই বিপর্যয়ের মুখে পড়ে। তবে আগামী বছর থেকে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধার ও অনুকূল আবহাওয়ার কারণে ভুট্টা উৎপাদনে দীর্ঘমেয়াদি প্রবৃদ্ধির পথে হাঁটছে ব্রাজিল।

রাবোব্যাংকের খাদ্যশস্য ও তেলবীজ বিভাগের ঊর্ধ্বতন বিশ্লেষক মার্সেলা মারিনি বলেন, আগামী দশকে ভুট্টা আবাদের ক্ষেত্রে বিশ্বের শীর্ষস্থানে অবস্থান করবে দক্ষিণ আমেরিকা। উৎপাদনের ক্ষেত্রে বড় ভূমিকা রাখবে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউক্রেনও। আমাদের প্রত্যাশা, ২০৩০ সালের মধ্যে শীর্ষ চার রফতানিকারক দেশে ভুট্টা উৎপাদন ১৫ কোটি ৯০ লাখ টন বেড়ে ৬৮ কোটি ২০ লাখ টনে উন্নীত হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

YouTube
Pinterest
LinkedIn
Share
Instagram
WhatsApp
FbMessenger
Tiktok