চীন-রাশিয়ার দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য ১৪ হাজার কোটি ডলার

স্টাফ রিপোর্টার

ইউক্রেন সংকটসহ বিভিন্ন ইস্যুতে পশ্চিমা দেশগুলোর সঙ্গে বিরোধের কারণে চীন ও রাশিয়ার সম্পর্ক আরো উন্নত হয়েছে। এ সময়ে দুদেশের দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য পৌঁছেছে নতুন উচ্চতায়। ২০২১ সালে চীন ও রাশিয়ার মধ্যে মোট ১৪ হাজার ৬৮৮ কোটি ডলারের বাণিজ্য হয়েছে। সংখ্যাটা আগের বছরের তুলনায় ৩৫ দশমিক ৮ শতাংশ বেশি। চীনের জেনারেল অ্যাডমিনিস্ট্রেশন অব কাস্টমস সম্প্রতি এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে। খবর নিক্কেই এশিয়া।

যদিও এখনো দুই দেশের বাণিজ্যের চূড়ান্ত পরিমাণ প্রকাশ করেনি মস্কো। আগামী মাসে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন চীনে অনুষ্ঠেয় বেইজিং অলিম্পিকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন এবং চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে দেখা করবেন। সেই সফরে বেশকিছু উচ্চ পর্যায়ের রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক চুক্তি হওয়ারও কথা রয়েছে। তার মধ্যে পাওয়ার অব সাইবেরিয়া-২ প্রাকৃতিক গ্যাসের পাইপলাইন নিয়ে চূড়ান্ত চুক্তিও হতে পারে বলে মনে করছেন অনেকে।

গত দশকব্যাপী, মস্কো ও বেইজিং বৃহত্তর অর্থনৈতিক স্বার্থের পাশাপাশি রাজনৈতিক সম্পর্কে পরস্পরের পরিপূরক হওয়ার চেষ্টা করছে। ২০১০ সাল থেকে দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্য বেড়েছে ১৬৭ শতাংশ। এর মধ্যে গত কয়েক বছরে বৃদ্ধির হার সর্বাধিক। এসব বাণিজ্য বৃদ্ধিতে সহায়তা করেছে জ্বালানি ও খনিজের বড় বড় প্রকল্প।

২০২৪ সালের মধ্যে দুই দেশের বাণিজ্য ২০ হাজার কোটি ডলার ছাড়িয়ে যাওয়ার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে রাশিয়া ও চীন। অবশ্য সেই লক্ষ্য অর্জন যে খুব একটা কঠিন হবে না সাম্প্রতিক অর্থনৈতিক গতিধারা সেই ইঙ্গিতই দিচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.